সদ্যই বিয়ে-হানিমুন পর্ব সেরে ফুল ফ্লেজে শ্যুটিং ফ্লোরে ফিরলেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। আর শ্যুটিং শুরু হতে না হতেই বড়সড় বিপাকে পড়লেন সৃজিত। সদ্যই উত্তরবঙ্গে 'ফেলুদা ফেরত' ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং শুরু হয়েছে। আর সেই শ্যুটিং চলাকালীন গরুমারা জাতীয় উদ্যান এলাকায় ড্রোন উড়িয়ে শ্যুটিং করতে গিয়েই বিপাকে পড়লেন পরিচালক। যার ফলে মোটা অঙ্কের জরিমানা গুনতে হয় পরিচালক সৃজিতকে। জাতীয় এলাকায় শ্যুটিং করার জন্য  প্রশাসনের তরফ থেকে যে অনুমতির প্রয়োজন হয় তা ছিল না সৃজিতের টিমের কাছে। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি।

আরও পড়ুন-বলি তারকা কুশলকে ট্যুইটে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন বন্ধুদের, মৃত্যু ঘিরে এখনও ধোঁয়াশা

আইন অমান্য করার অপরাধে পরিচালককে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও শ্যুটিংয়ে ব্যবহারকারী ড্রোনও বাজেয়াপ্ত করে নেওয়া হয়েছে। চালসা রেঞ্জের পানঝোড়া বস্তি এলাকায় চলছিল ফেলুদা ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং। পাশেই ছিল মূর্তি নদী। আর মূর্চতির চড়েই ড্রোন উড়িয়ে চলছিল শ্যুটিং। তার উপর আবার নতুন ফেলুদারে দেখার আগ্রহ রয়েছে প্রত্যেকের। আর এই কারণে বেশ ভিড়ও জমেছিল। 

আরও পড়ুন-ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত, অভিযোগ দায়ের রবিনার বিরুদ্ধে...

শ্যুটিং চলাকালীন বনদপ্তরের আধিকারিকরাও উপস্থিত ছিলেন। শ্যুটিং চলাকালীন বন দফতরের কর্মীরা ড্রোন ওড়াতে দেখে বিষয়টিতে বাধা দেন। আর তাতেই সাময়িক ভাবে ব্যাহত হয় 'ফেলুদা ফেরত'-সিরিজের শ্যুটিং। সৃজিত নিজেও বন দফতরের স্থানীয় আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন। আপাতত জরিমানা দিয়েই নির্বিঘ্নেই শ্যুটিং চলছে। পরবর্তী কালে ড্রোন শট নিয়ে যাতে কোনও সমস্যা না হয় সে জন্য দিল্লীতে আবেদনও করেছেন পরিচালক। যদিও এত কম সময়ে আবেদন মিলবে কিনা  সে বিষয় নিয়েও যথেষ্ঠ সন্দেহ হয়েছে।