Asianet News Bangla

'আমার কাছে প্রতিটি দিনই ভ্যালেন্টাইন্স ডে', প্রেম দিবসে বার্তা অভিনেতা দীপঙ্করের

  • বিয়ের পর প্রথম ভ্যালেন্টাইন্স ডে দীপঙ্কর-দোলনের
  • ভালবাসার কোনও বয়স হয় না, জানালেন দীপঙ্কর
  •  দীপঙ্কর দোলনের শরীরেরই একটা অংশ, জানালেন দোলন
  • জীবনের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ  মুহূর্তও শেয়ার করেছেন দোলন-দীপঙ্কর
Every day is valentine day says Deepankar
Author
Kolkata, First Published Feb 14, 2020, 1:30 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সদ্যই সাত পাকে বাধা পড়েছেন টলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা দীপঙ্কর দে এবং দোলন রায়। ভালবাসার কোনও বয়স হয় না। বয়স যে নেহাতই একটা সংখ্যামাত্র ৭৫-এ এসেও তা যেন আরও একবার মনে করিয়ে দিলেন অভিনেতা দীপঙ্কর ।  দীর্ঘদিনের জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অভিনেত্রী দোলন রায়ের সঙ্গে অবশেষে সাত পাকে বাঁধা পড়লেন তিনি। মনের মিলন যে আসল  সেটা আবারও প্রমাণ করে দিলেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন বহু চর্চিত এই কাপল। অবশেষে তাদের সম্পর্কে শিলমোহর পড়ল। বিয়ের পর এটাই তাদের প্রথম ভ্যালেন্টাইন্স ডে। কী প্ল্যান রয়েছে, কে কী গিফট পেলেন এই বিশেষ দিনে তা জানার জন্য প্রত্যেকেই কৌতুহলী হয়ে রয়েছে। তাহলে জেনে নেওয়া যাক অভিনেতা দীপঙ্কর এবং অভিনেত্রী দোলনের কাছে ভ্যালেন্টাইন্স ডে-এর অর্থ।

আরও পড়ুন-ভ্যালেন্টাইন্স ডে স্পেশ্যাল নুসরত, লাল নয় বেগুনিতেই নজর কাড়লেন অভিনেত্রী...

সম্প্রতিী একটি বিশেষ সাক্ষাৎকারে দীপঙ্কর জানিয়েছেন, 'ভ্যালেন্টাইন্স ডে বলে বিশেষ কোনও দিন নয়, প্রতিটি দিনই তার কাছে ভ্যালেন্টাইন্স ডে। এই বয়সে নতুন করে ভ্যালেন্টাইন্স পালন করা সাজে না আমায়। বরং তার চাইতে দোলনকে মানায়।'গল্প বলতে বলতে ছদ্মবেশি সিনেমাতেই প্রথম দেখা হয়েছিল দুজনেরল সেটাও শেয়ার করেন অভিনেতা। তারপর কখন যে মন বিনিময় দেওয়া হয়েছিল সেটা নিজেরাও জানেন না। বিদেশে নাটক সূত্রে একসঙ্গে ছিলেন দীপঙ্কর দোলন আর তখন থেকেই নাকি শুরু হয়ে গিয়েছিল ভ্যালেন্টাইন্স ডে। নিজের জীবনের প্রিয় মানুষকে সঙ্গে নিয়ে তিনি হাসতে হাসতে এইকথাই জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন-ভ্যালেন্টাইন স্পেশাল জন্মদিনে কী প্ল্যান অঙ্কুশের, জেনে নিন এখনই...

যত দিন যাচ্ছে সম্পর্কের পরিণতি ক্রমশ বাড়ছে। সেই প্রসঙ্গেই দোলন জানিয়েছেন,  ' বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচুওরিটি আসে। ভালবাসার সঙ্গে ত্যাগও জড়িয়ে ওতপ্রোতভাবে। আর সত্যি বলতে কি নিজের শরীরের আলাদা কোনও অংশ বলে মনে করি না দীপঙ্করকে '। বাড়ির সমস্ত দায়িত্বটাই একার হাতে সামলাচ্ছেন দীপঙ্কর। জীবনের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ  মুহূর্তও শেয়ার করেছেন দোলন। বেড়াতে যেতে ভীষণ ভালবাসেন এই কাপল। ইতালি ট্যুরে গিয়ে  ব্যাগ হারিয়ে গিয়েছিল তাদের। তিন দিন পর সেই ব্যাগ অবশ্য ফেরত পান তারা। কিন্তু ওই তিনদিন এক জামাকাপড়েই ছিলেন তারা।  এইভাবেই জীবনের একের পর জার্নির কথা শেয়ার করেছেন দীপঙ্কর ও দোলন।

ভালবাসার কাছে বয়স যে কোনদিনই হার মানে না তা যেন চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন টলিপাড়ার এই নবদম্পতি। দক্ষিণ কলকাতার এর রেস্তোরায় বসেছিল সেই বিয়ের আসর। খুব আড়ম্বর না থাকলেও কাছের মানুষদের সাক্ষী রেখেই রেজিস্ট্রি করে বিয়ে সারলেন দীপঙ্কর এবং দোলন। বেশি আড়ম্বর না থাকলেও বিয়ের সাজসজ্জা ছিল পরিপূর্ণ। সাদা পাঞ্জাবি, ধুতিতে বরের বেশে নজর কেড়েছেন দীপঙ্কর। আর অপরদিকে লাল বেনারসী, শাখা-পলা,গা ভর্তি গয়না, মাথা ভর্তি সিঁদুর, মাথায় লাল ফুল দিয়ে একদম নতুন বউ-এর রূপে নজর কেড়েছিলেন দোলন রায়। নিয়ম মেনে মালাবদল করেই চারহাত এক হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাট্যকার অভিনেতা ব্রাত্য বসু, ধ্রুব কুন্ডু, লেখক-সাংবাদিক রঞ্জন  বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌমিত্র মিত্র। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দোলনের ভাই দুর্গাশিষ।


 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios