টলিউডের সবথেকে পুরোনো এবং ঐতিহ্যবাহী অনুষ্ঠান অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান হল এই 'সিনেমার প্রত্যাবর্তন' অনুষ্ঠান। ওয়েস্ট বেঙ্গল ফিল্ম জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে প্রতিবছর এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বহুদিন ধরে 'সিনেমার সমাবর্তন' অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এই বছর চতুর্থ বর্ষে পা রাখল এই অ্যাওয়ার্ড শো। দক্ষিণ কলকাতার প্রিয়া সিনেমা হলে অনুষ্ঠিত হল 'সিনেমার প্রত্যাবর্তন' অনুষ্ঠান।

 

টলি ইন্ডাস্ট্রির উজ্জ্বল ব্যক্তিত্বরা প্রত্যেকেই উপস্থিত ছিলেন।  যেমন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, ঋদ্ধি সেন, চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়, রাজ চক্রবর্তী, শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়, সুদীপ্তা চক্রবর্তী, সহ আরও অনেকেই এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

 

 

বাংলার সাংবাদিক, ফিল্ম সমালোচকদেক বিচারে বেছে নেওয়া হয়েছে সেরা অভিনেতা, অভিনেত্রী, সেরা পরিচালকদের। তবে ২০২০-র অনুষ্ঠান মঞ্চে সবথেকে বেশি পুরস্কারে যার ঝুলি ভর্তি হয়েছে তিনি হলেন পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়। 'নগরকীর্তন'  সিনেমাটি মোট ৮টি বিভাগে পুরস্কার জিতে নিয়েছে। এছাড়াও অনির্বাণ ভট্টাচার্য,  প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, আবির ভট্টাচার্যের মতো অভিনেতাদের ঘোড়দৌড়ে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন ঋদ্ধি সেন এবং সেরা অভিনেত্রী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। 

 

২০১৯ সালটা টলি ইন্ডাস্ট্রির জন্য খুব একটা মন্দ নয় তা কিন্তু হলফ করে বলা যাচ্ছে। একঝলকে দেখে নিন 'সিনেমার সমাবর্তন' ২০১৯-এর সেরার তালিকা।

সেরা পরিচালকঃ কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় (নগরকীর্তন)

সেরা অভিনেতাঃ ঋদ্ধি সেন (নগরকীর্তন)

সেরা অভিনেত্রীঃ শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় (পরিণীতা) 

সেরা জনপ্রিয় ছবিঃ দুর্গেশগড়ের গুপ্তধন

সেরা জনপ্রিয় অভিনেতাঃ প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (গুমনামি), দেব (সাঁঝবাতি)

সেরা নেতিবাচক চরিত্রঃ ঋত্বিক চক্রবর্তী (ভিঞ্চি দা)

সেরা সহ অভিনেতাঃ রুদ্রনীল ঘোষ (কেদারা)

সেরা সম্পাদকঃ শুভজিৎ সিংহ (নগরকীর্তন)

সেরা সিনেমাটেগ্রাফারঃ শুভঙ্কর ভড় (কেদারা)

সেরা প্লে-ব্যাক গায়কঃ অনির্বাণ ভট্টাচার্য (কিচ্ছু চাইনি আমি)

সেরা প্লে-ব্যাক গায়িকাঃ লগ্নজিতা চক্রবর্তী (প্রেমে পড়া বারণ)

প্রত্যেক অভিনেতা-অভিনেত্রীরাই সেশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের পুরস্কারের ছবি পোস্ট করেছেন। এবং অভিনেত্রী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় পুরো কৃতিত্বটাই  স্বামী রাজ চক্রবর্তীকে দিয়েছেন।