সোমবার সকালে প্রয়াত হলেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী রুমা গুহঠাকুরতা। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বাংলা চলচ্চিত্র জগতে। তিনি বেশ কিছু ছবিতে প্লেব্যাকও গেয়েছিলেন। কয়ার গানে তাঁর বিশেষ ছাপ রেখেছিলেন রুমা গুহঠাকুরতা। তাই সঙ্গীত জগতের শিল্পীরাও শোকার্ত তাঁর প্রয়াণে।

ইতিমধ্য়েই রুমা গুহঠাকুরতার প্রয়াণে দুঃখপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা টুইট করেছেন, রুমা গুহঠাকুরতার প্রয়াণে দুঃখিত। চলচ্চিত্র ও সঙ্গীত জগতে তাঁর অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। ওঁর পরিবার ও অনুরাগীদের জন্য সমবেদনা রইল। 

বেশ কিছুদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন তিনি। আজ, সোমবার সকালে মৃত্যু হয় তাঁর। কাল থেকেই শারীরিক অবনতি হয় অভিনেত্রীর। আজ সকালে ঘুমের মধ্যেই মৃত্যু হয় তাঁর। 

১৯৫৯ সালে পার্সোনাল অ্যাসিস্ট্যান্ট ছবি দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্র জগতে পদার্পণ তাঁর। ১৯৬২ সত্যজিৎ রায়ের অভিযান ছবিতে অভিনয় করেছেন রুমা গুহ ঠাকুরতা। এছাড়াও তাঁর উল্লেখ্যযোগ্য ছবিগুলির মধ্যে রয়েছে, গঙ্গা, নির্জন সৈকতে, পলাতক, বালিকা বধূ, অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি, বাঘিনী, দাদার কীর্তি, ৩৬ চৌরঙ্গি লেন, অমৃত কুণ্ডের সন্ধানে, আক্রোশ, গণশত্রু, হুইল চেয়ার, দ্য নেমসেক। যদিও ১৯৪৪-এ জোয়ার ভাঁটা হিন্দি ছবি থেকে অভিনয়ের হাতেখড়ি রুমা গুহঠাকুরতার।

মায়ের মৃত্যুর খবরে ছেলে অমিত কুমার আজই আসছেন কলকাতায়। তিনি এলেই আজ কেওড়াতলায় রুমা গুহঠাকুরতার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।