প্লাস্টিক সার্জারি, লাইপোসাকশন, লিপ ইনজেকশনস, চিক লিফ্ট, হেয়ারলাইন কারেকশন, এই ধরণের বিভিন্ন প্লাস্টিক বিউটির ট্র্যাপে পড়ে যান অভিনেত্রী থেকে অভিনেতারা। প্রথম সারির তারকারা থেকে শুরু করে এই সার্জারির সাহায্য নিয়ে সৌন্দর্য, গ্ল্যামার বাড়িয়ে থাকে। এই সাহায্য কি শেষমেশ নিয়ে ফেললেন ঐন্দ্রিলা সেন। এমনই মন্তব্য করে বসল একের পর এক নেটিজেনরা। ঐন্দ্রিলার ঠোঁটে পরিবর্তন নজরে এল সকলের। 

ঐন্দ্রিলার উপরের ঠোঁট রীতিমত মোটা লাগছে বলে দাবি সকলের। একাধিক সাইবারবাসীর কথা ঐন্দ্রিলা ঠোঁটের উপর কাঁচি চালিয়েছেন। অর্থাৎ তিনি অপারেশন করিয়েছেন। সোজা ভাষায় যাকে বলে প্লাস্টিক সার্জারি কিংবা লিপ ইনজেকশন। এই ধরণের সার্জারি কিংবা ইনজেকশনের মাধ্যমে পাতলা ঠোঁট ঠিক করা যায়। অনুষ্কা শর্মা, ঐশ্বর্য রাই, প্রিয়ঙ্কা চোপড়া, ক্যাটরিনা কাইফ অনেকেই এই সার্জারির মধ্য দিয়ে গিয়েছেন। নিন্দুকদের কথায়, নুসরত জাহান, শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়, মিমি চক্রবর্তী, সায়ন্তিকা মুখোপাধ্যায়ও এই লিপ সার্জারির সাহায্যে ঠোঁট ফুলিয়েছেন। 

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Life is a collection of moments 🥰 @ankush.official

A post shared by Oindrila Sen (@love_oindrila) on Sep 19, 2020 at 1:52am PDT

 

সম্প্রতি ঐন্দ্রিলা সেনের বেশ কিছু ছবি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া ছিল উত্তাল। অভিনেত্রী কোন ধারাবাহিক কিংবা ছবিতে কাজ করতে চলেছেন কিংবা তাঁর পুজোর প্রস্তুতি কেমন, সেই নিয়ে আলোচনা না করে তাঁর এডিটেড ছবি নিয়ে শোরগোল পড়েছে নেটদুনিয়ায়। ঐন্দ্রিলা নাকি নিজের ছবিতে অ্যাপ্লিকেশনের সাহায্য নিজেকে রোগা বানিয়েছেন। অন্যদিকে তাঁর ভক্তদের দাবি তিনি সম্পূর্ণ জিমে শরীরচর্চা করে কঠোর পরিশ্রম করেই মেজ ঝড়িয়েছেন। ছবির মধ্যে নেই কোনও ফেকনেস। এই বিবাদ যে এত সহজে মেটার তা স্পষ্ট।