ব্যোমকেশ, ফেলুদা, কাকাবাবু পর্ব তো অনেক হল, এবার মহিলা গোয়েন্দার প্রবেশ পালা টলিউডে। সাহিত্যের পাতা থেকে এবার টলিউডে নতুন গোয়েন্দা চরিত্রের সংযোজন, মিতিন মাসি। সুচিত্রা মুখোপাধ্যায় রচিত এই গোয়েন্দা চরিত্রের এবার পর্দায় আবির্ভাব।

মিতিন মাসি, ঢাকুরিয়ার বাসিন্দা, বোনঝি টুপুরকে সঙ্গে নিয়ে নানান রহস্যের সমাধান করে থাকেন। তার স্বামী প্রেস-এ কর্মরত, ভোজন রসিক মানুষ। গোয়েন্দা হিসেবে তার পরিচিতিও ভালো, পুলিশের অধিকার্তারা মাঝে মধ্যেই নানান কেস-এর তদন্তের সূত্র খুঁজতে সাহায্য নিতে আসেন তার কাছে।

পুজোতেই মুক্তি পাবে ছবি। একের পর এক বাংলা ছবির পটভূমি ঘিরে রহস্য, পর পর মুক্তির অপেক্ষায় গোয়েন্দা ছবি। ২০১৯-এর বাংলার সিলভার স্ক্রিনে একচেটিয়া রাজত্ব চালাচ্ছেন এনারাই। মিতিন মাসি-কে নিয়ে ছবি হওয়ার কথা ছিল অনেক আগেই কিন্তু বিভিন্ন কারণ বশত তা আর হয়ে ওঠেনি।

এবার সেই চিত্রনাট্যই হাতে তুলে নিলেন পরিচালক অরিন্দম শীল। মিতিন মাসি- ভূমিকায় থাকছেন কোয়েল মল্লিক। মোটের ওপর ১৪টি গল্প রয়েছে এই রচনাবলীর আওতায়। তার মধ্যে কোন গল্প দিয়ে পর্দায় আত্মপ্রকাশ গোয়েন্দার সেই বিষয় মুখ খোলেননি পরিচালক। মঙ্গলবার তারই প্রথম পোস্টার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন কোয়েল মল্লিক ও অরিন্দম শীল।

প্রসঙ্গত, অপর এক গোয়েন্দা ছবি সমুদ্রগড়ের যকের ধনের শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত নায়িকা। পর পর তিন ছবিতে দর্শক পেতে চলেছেন কোয়েলকে। জিৎ অভিনীত শেষ থেকে শুরু, সমুদ্রগড়ের যকের ধন এবং মিতিন মাসি।