শহরে শীত জাঁকিয়ে পড়েছে। উৎসবের মেজাজে প্রত্যেকেই ব্যস্ত। সারা শহর যেন আলোয় সেজে উঠেছে। শহর জুড়ে ফেস্টিভ মুড। নজরকাড়া শীতের পোশাক, সাজগোজ আরও কত কি। এই নিয়ে যেন প্রত্যেকে ব্যস্ত আমরা। কিন্তু যারা ফুটপাতবাসী, না আছে তাদের ঘকবাড়ি, না পর্যাপ্ত পোশাক। অনুষ্ঠান, আনন্দ সবই যেন ম্লান তাদের জীবনে।  আর তাই বড়দিনের আগে সান্তা সেজে ফুটপাতবাসীর কাছে পৌঁছে গেলেন সাংসদ-অভিনেত্রী নুসরত জাহান।

আরও পড়ুন-২০১৯-এর নবদম্পতি , এক নজরে ফিরে দেখা টলিউডের বিয়ের আসর...

বড়দিন উপলক্ষে 'সিক্রেট সান্তা' সেজে কম্বল বিলি করলেন নুসরত। তবে শুধু ফুটপাতবাসী নয়, সমাজের পতিতালয়ের যৌনকর্মীদের মাঝেও বিলিয়ে দিয়ে কম্বল। নিজের হাতে বাচ্চাদের মুড়ে দিলেন ওই কম্বল। এই কনকনে শীতের ঠান্ডায় রাতের বেলা স্বামী নিখিলকে সঙ্গে নিয়ে  বেরিয়ে পড়লেন উপহার দিতে। তারপরই যত্ন সহকারে সবাইকে নিজের হাতে কম্বলে মুড়িয়ে দিলেন অভিনেত্রী। বড়দিন মানেই সান্তাক্লজ। তবে সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়ে তখন সান্তা দাদু সবাইকে উপহার দিয়ে যায়। কিন্তু এই সান্তা সেই গল্পের সান্তা নয়, যিনি কিনা শহরের ফুটপাতবাসীদের বাস্তবের সান্তা। নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে  একটি ভিডিও শেয়ার করে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, 'প্রত্যেক উৎসব, আনন্দ, খুশি নিয়ে আসে। আর এই খুশি সবার মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া উচিত। আমিও সেই আনন্দটা সবার মধ্যে ভাগ করে নিলাম'। দেখে নিন ভিডিওটি।

 

আরও পড়ুুুন-সারা পিঠ জুড়ে ট্যাটু, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুললেন টলি পাড়ার এই বঙ্গতনয়া...

যদিও এই প্রথমবার নয়, বরাবরই ব্যতিক্রমী মানসিকতার প্রমাণ দেন তিনি। এর আগেও বহুবার পথশিশুদের সঙ্গে আনন্দ ভাগ করে নিয়েছেন। আবার কখনও দীপাবলি উপলক্ষে দুর্গতদের বস্ত্র বিলি করেছেন। আবার কখনও কখনও সমালোচকদের চোখরাঙানিকে উপেক্ষা  করে নিজের ইচ্ছামতো সবকিছু দিব্যি করে গেছেন। কিন্তু সবকিছুর উর্ধ্বে গিয়ে যেন আরও একবার মন কেড়ে নিলেন ভক্তদের।