রামনাম করে গণপিটুনি ও হত্যা রুখতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি পাঠিয়েছেন ৪৯ জন বিশিষ্টজন। জোর করে দলিত ও মুসলিমদের জয় শ্রীরাম বলাতে গিয়ে প্রায়ই গণপিটুনির ঘটনা উঠে আসছে। প্রধানমন্ত্রী এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে এখনও মুখে কুলুপ এঁটেই রয়েছেন। তাই এবার যাতে মোদী এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেন তার জন্য আবেদন করলেন এই বিশিষ্টজনরা। এঁদের মধ্যে রয়েছেন অপর্ণা সেন, শ্যাম বেনেগাল, অনুরাগ কাশ্যপ-সহ আরও অনেকে। এই বিশিষ্টজনদের সমর্থনে এবার মুখ খুললেন তারকা সাংসদ নুসরত জাহান।

নুসরত সারে জাঁহা সে আচ্ছা প্রসঙ্গ টেনে ভারতের বৈচিত্রের কথা মনে করিয়ে দেন। ভারতে নানা ধর্ম ও নানা জাতির মানুষ বাস করেন।এই বৈচিত্র নষ্ট হওয়া উচিত নয়।  সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের মাধ্যমে জানান নুসরত। এই সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টেই তিনি জানান, মণি রত্নম থেকে শ্যাম বেনেগাল সহ বিশিষ্টজনদের এই উদ্যোগকে তিনি সমর্থন করছেন। 

আরও পড়ুুনঃ 'গলা জড়িয়ে ধরে জয় শ্রীরাম বলুন', ধর্মীয় স্লোগান তোলা নিয়ে যা বললেন নুসরত

তিনি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে জানান, গরু পাচার ও গোমাংস খাওয়ার অভিযোগে বার বার দেশের মানুষের উপরে চড়াও হচ্ছে গোরক্ষকরা। এর পরেও সরকার যে ভাবে চুপ করে রয়েছে আমাদের ভাবাচ্ছে। 

 

 

জয় শ্রীরাম প্রসঙ্গেও এদিন নিজের মতামত প্রকাশ করেন নায়িকা তথা লোকসভার সাংসদ। তিনি বলেন,  ভগবানের নাম করে গণপিটুনির জন্য রামনাম 'মার্ডার ক্রাই'-তে (হত্যার মড়া কান্না) পরিণত হয়েছে। এই গণধোলাইকারীরাই ভারতের শত্রু। এরা সন্ত্রাসবাদীদের থেকে কম কিছু নয়। 

এছাড়াও নুসরত বলেন, এই প্রজন্মের এক জন সাংসদ ও ধর্মনিরপেক্ষ ভারতের প্রতিনিধি হিসেবে আমি চাই এদের বিরুদ্ধে কড়া আইন তৈরি হোক। গণতন্ত্রের কথা মাথায় রেখেই এই গণধোলাইকারীদের বিরুদ্ধে কড়া শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।  মানবিকতার খাতিরে গরু ও ভগবানের নামে এভাবে মানুষের দাড়ি ও টুপি দেখে হত্যালীলা বন্ধ হোক।