চলচ্চিত্র জগতের অন্যতম দুই কর্ণধার। একজন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও অন্যজন নাসিরুদ্দিন শাহ। টলি-বলির সমীকরণের তৈরি হতে চলেছে বাংলার নতুন ছবি দেবতার গ্রাস। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে ছবির শ্যুটিং। শৈবাল মিত্র পরিচালিত এই ছবিতে দুই মূখ্যচরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও নাসিরুদ্দিন শাহকে। অন্যদুই গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন কৌশিক সেন ও সুমন চট্টোপাধ্যায়।

চলতি মাসেই শুরু হয়েছে ছবির শ্যুটিং। মুলত পশ্চিমবঙ্গের গ্রামীন এলাকাগুলোকে বেছে নেওয়া হয়েছে শ্যুটিং লোকেশন হিসেবে। আগামী কয়েকমাস এভাবেই বিভিন্ন গ্রামে চলবে ছবির কাজ।

ছবিতে বসন্ত কুমার চট্টোপাধ্যায়ের ভূমিকায় পাওয়া যাবে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে ও অ্যান্টন ডিসুজার ভুমিকায় পাওয়া যাবে নাসিরুদ্দিন শাহকে। গল্পের প্রেক্ষাপট অনুযায়ী কুণাল চরিত্রকে ঘিরেই আদালতে হাজির বসন্ত কুমার ও অ্যান্টন ডিসুজা। ছবিতে কুনালের চরিত্রে অভিনয় করছেন সুমন চট্টোপাধ্যায়। অন্যদিকে সাংবাদিকের ভুমিকায় দর্শক পাবে কৌশিক সেনকে।

পরিচালকের মতে এই ছবি তৈরি করতে গিয়ে তিনি জীবনের সেরা অভিজ্ঞতা লাভ করছেন। পরিচালকের মতে এই ছবির দুই মূল দিক, নাসিরুদ্দীন শাহ-র সুতীক্ষ্ণ অভিনয় ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের গলায় আবেগ ভরা সংলাপ, এই দুয়ের ভারসাম্যই ছবিটিকে আলাদা মাত্রা দেবে।

হিল্লোলগঞ্জের বিজ্ঞানের প্রফেসর কুণাল, তিনি বিজ্ঞান পড়ানোর এক বিশেষ পন্থাকে অস্বীকার করলে শুরু হয় বচসা, যাকে কেন্দ্র করেই আদালতে প্রবেশ দুই চরিত্রের। শেষ অবধি জয় লাভ হবে কার, তারই গল্প বলবে দেবতার গ্রাস।