ভালো আছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। শরীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটায় আশার আলো দেখছেন ডাক্তারেরা। বৃহস্পতিবার রাতে মেডিক্যাল বুলেটিনে তেমনটাই জাানো হল হাসপাতালের পক্ষ থেকে। সংকট অবস্থা না কাটলেও, এখন চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন সৌমিত্র। শারীরিক জটিলতা থাকা সত্ত্বেও তা ধীরে ধীরে কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হবেন প্রবীণ অভিনেতা, এমনটাই আশা রাখছেন ডাক্তারেরা। গত সাতদিন ধরে যে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, তা থেকে অনেকটাই বেড়িয়ে এসেছেন তিনি। ডাকে সাড়া দিচ্ছেন, চোখও খুলছেন মাঝে মধ্যে। 

কী জানাচ্ছেন চিকিৎসারত ডাক্তার- 

যদিও এখনও তাঁকে ভেন্টিলেশনেই রাখা হয়েছে। এখনও সেখান থেকে বের করে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট বিশেষজ্ঞ ডা. অরিন্দম কর জানিয়েছেন, কিডনির সমস্যা অনেকটা কাটিয়ে উঠছেন। যদিও স্নায়ু ও কিডনির সমস্যার জন্য নির্দিষ্ট মেডিক্যাল বোর্ড বসানো হয়েছে। তবে শরীরে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা মাঝে মধ্যেই কমে যাচ্ছে। বারে বারে তাঁকে রক্ত দেওয়া হলেও এই সমস্যা থেকেই যাচ্ছে। তাঁর শারীরিক অবস্থা নিয়ে দীর্ঘ বৈঠকও হয়। সামান্য হলেও উন্নতি লক্ষ্য করছেন ডাক্তারেরা।

 

 

মেয়ের ডাকে চোখ খুললেন সৌমিত্র-  

বুধবার পর্যন্ত মুত্রত্যাগ না করলেও, বৃহস্পতিবার মুত্রত্যাগ করেছেন। শরীরে ইনফেকশনের মাত্রা এখন অনেকটাই কম। কয়েকদিনের মধ্যেই অ্যান্টিবায়োটিক বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। রক্তের রিপোর্ট ইতিবাচক। তাঁর শরীরিক অবস্থার বিস্তারিত খবর শুক্রবার প্রকাশ্যে আনার কথাও জানান এদিন ডাক্তার। শুক্রবারই দীর্ঘ বৈঠক করে একটি সমাধানসূত্রে আসা সম্ভবপর হবে বলে এদিন জানানো হয়। আগামী কয়েকদিনে তাঁর শারীরিক অবস্থার আরও উন্নতি হওার আশা দেখছেন ডাক্তারেরা। এদিন তাঁর মেয়ের ডাকে চোখ মেলে চেয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তবে এখনই কোনও ফাইনাল খবর দিতে নারাজ ডাক্তার। তবে শুক্রবার মিলতে পারে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার আরও বিস্তারিত খবর, এমনটাই জানান চিকিৎসারত ডাক্তার অরিন্দম কর।