সারা রাজ্য জুড়ে এনআরএস কাণ্ডের জেরে চিকিৎসকরা আন্দোলন চালাচ্ছেন। তাঁরা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী এনআরএস-এ এসে যথাযথ ব্যবস্থা নিয়ে তাঁদের দাবি মেটালেই কাজ শুরু করবেন। চিকিৎসকদের সঙ্গে আজ মমতা দেখা করবেন কি না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এরই মাঝে যাদবপুর কেন্দ্রের নব নির্বাচিত সাংসদ মিমি চক্রবর্তী জানালেন, তিনি কী ভাবে এক চিকিৎসকদের দ্বারা উপকৃত হলেন।

মিমি ইনস্টাগ্রাম পোস্টের মাধ্যমে জানান, স্টমাক ইনফেকশন ও জ্বরে ভুগছিলেন তিনি। এক চিকিৎসকের ওষুধে শীঘ্র সুস্থ হয়ে উঠেছেন তিনি। তিনি লেখেন, আমি স্টমাক ইনফেকশন ও ১০৩ জ্বরে ভুগছিলাম। আমি খুব চিন্তায় ছিলাম কারণ আমার ফ্লাইটে করে অনেকটা দূর যেতে হবে। আমি আশা ছেড়ে দিয়েছিলাম। কিন্তু আমি আমার চিকিৎসকের কাছে কৃতজ্ঞ যে তিনি আমার কাছে এসে ওষুধ দিয়ে সারিয়ে তুলেছেন। ফলে আমার যাত্রা আর বাতিল করতে হচ্ছে না। আমাদের সমাজে সবাই সবার উপরে নির্ভরশীল।

প্রসঙ্গত, এনআরএস কাণ্ডের জেরে জুনিয়র ডাক্তাররা আন্দোলন চালিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু এখনও নিজেদের দাবিতে অনড় চিকিৎসকরা। আজ আইএমএ প্রধান শান্তনু সেন-এর এনআরএস কর্তৃপক্ষের বৈঠকে বসার কথা। কিন্তু এনআরএস-এর অধ্যক্ষ-সহ আরও এক শীর্ষকর্তা ইস্তফা দিয়েছেন। ফলে বৈঠক কার সঙ্গে  হবে এবং তার ফলাফল কী হবে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। 

এনআরএস কাণ্ডকে নিন্দা করে বহু তারকাও তাঁদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্য়ায়-সহ অনেকেই ঘটনা নিয়ে টুইট করেছেন।