পরপুরুষের সঙ্গে  দীঘা বেড়াতে যাওয়ার প্ল্যান কষছেন টলিপাড়ার প্রথমসারির অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। অভিনেত্রী স্বস্তিকার হলটা কি। নেটিজেনরা অনেকেই বলছেন  নিজের এত বড় মেয়ে থাকতে কেন তিনি অন্য পুরুষের সঙ্গে একান্ত সময় কাটাতে দীঘা যেতে চাইছেন।  সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস হল স্বস্তিকার গোপন কথোপকথন। মুহূর্তের মধ্যে ভিডিওটি ঘিরে উত্তাল হয়েছে নেটপাড়া। বিষয়টি একটু খোলসা করে বলা যাক।

আরও পড়ুন-বলি 'Sexiest'মৌনির গোপন ১৫ টি তথ্য ঘুম ওড়াবে আপনার, জেনে নিন বঙ্গতনয়ার 'Open Secret'...

 

 

রনিকে প্রাইভেট টিচার স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।  প্রতিদিন রনিকে পড়ানোর সময় বারংবার রনির বাবা তাদের ঘরে ঢুকে পরে। তারপরই শুরু হয় তার শরীরচর্চা।  তার সিক্স প্যাক ঘাম ঝরানো শরীর দেখে কোনওভাবেই রনির পড়াতে মনযোগ দিতে পারেন না স্বস্তিকা। বারংবারই চোখ চলে যায় সেক্সি সুঠাম চেহারার দিকে। আর এই কারণে রনির পড়াটাও মন দিয়ে করাতে পারছেন না স্বস্তিকা। রনির বাবার এই কর্মকান্ডের জন্য ফোনে অভিযোগ জানান প্রাইভেট টিচার স্বস্তিকা।

 

স্বস্তিকার ফোনের উত্তরে ছাত্রের বাবা জানান, শরীরচর্চা করা তার প্যাশন। তারপর উঠে এল বাইরে ডেটিং-এর প্রসঙ্গ। সেখান থেকে সোজা সমুদ্রসৈকত দীঘায় যাওয়ায় প্রস্তাব। রনি বাবা তো এককথায় রাজি। দীঘার হোটেল বুক হওয়া থেকে প্ল্যান পুরো রেডি আর সেই সময়েই মাঝপথে  বাধা দিলেন হোটেল ম্যানেজার ওরফে রেডিও জকি প্রবীণ। ব্যস পুরোটাই ঘেটে ঘ। আসলে ৯৩.৫ রেড এফএমএ হাজির হয়েছিলেন স্বস্তিকা। এবং আর জে প্রবীণ-এর সঙ্গে রেডিও শো-তে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। তারমধ্যেই প্যারেন্ট টিচার মিটিংয়ে ফাটিয়ে অভিনয় করলেন অভিনেত্রী। টলিপাড়ার প্রথমসারির অভিনেত্রীদের বরাবরই তিনি স্বপ্রতিষ্ঠিত। প্রতিবাদের ঝড় সবসময়েই উঠেছে তার গলায়। কোনও কিছু মুখ বুঝে সহ্য করা তার সহজাত নয়। অন্যায়ের বিরুদ্ধে সবসময়েই তিনি গলা চড়িয়ে গর্জে ওঠেন। অভিনয় যে তার সহজাত, তা যেন মুহূর্তে বুঝিয়ে দিলেন স্বস্তিকা। দুরন্ত গতিতে ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও। ২৪ ডিসেম্বর হইচই-তে মুক্তি পেয়েছে 'চরিত্রহীন ৩'। পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্য পরিচালিত 'চরিত্রহীন ৩'-এর মুখ্য চরিত্রে দেখা গেছে স্বস্তিকা এবং সৌরভ দাসকে।