করোনা আতঙ্কে গ্রাস করেছে সারা বিশ্বকে। তার উপর দীর্ঘ এত দিনের লকডাউনে করুণ পরিস্থিতি হয়েছে সকলেরই। তবে বর্তমানে সবথেকে বেশি আর্থিক সঙ্কটে রয়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। সারা দেশ জুড়েই হাহাকার।  কাজ নেউ, খাবার নেই, ঘরে ফেরার যানবাহন নেই সব কিছু থেকেই তারা যেন ব্রাত্য। কিছুদিন আগেই পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফিরিয়েছেন দেব।  শুধু  তাই নয় দুঃস্থদের সাহায্যেও বারবার এগিয়ে এসেছেন অভিনেতা।  এবার করোনা আক্রান্ত মুমূর্ষ রোগীর পাশে দাঁড়ালেন সাংসদ অভিনেতা দেব।

আরও পড়ুন-'রিয়ার মতোন অনেকেই ব্ল্যাকমেইল করে টাকা হাতিয়ে নেন', নওয়াজের স্ত্রী আলিয়াকে আক্রমণ অভিনেতার ভাইয়ের...

সারা দেশে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে করোনা আতঙ্কে। কোনওভাবে আটকানো যাচ্ছে না মারণ ভাইরাসকে। হু হু করে বাড়ছে করোনার প্রকোপ। আর সরকারি হাসপাতাল গুলোতেও ক্রমশ কমছে বেডের সংখ্যা। এই সুযোগকেই কাজে লাগিয়ে কোভিড চিকিৎসায় হাসপাতালে বেড পাওয়া মুশকিল হয়ে দাঁড়াচ্ছে।  করোনার সংখ্যা যত বাড়ছে ততই হাসপাতালে ঠাঁই পাচ্ছে না করোনা রোগীরা। করোনা আক্রান্তরা তো ভুক্তভোগী হচ্ছেনই তার পাশাপাশি রোগীর পরিজনরাও নাকানি-চোবানি খাচ্ছে।  একাধিকবার হাসপাতাল থেকে রোগী ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। এহেন পরিস্থিতির শিকার হলেন যাদবপুরের এক বাসিন্দা। সেই খবর সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই রাতারাতি ছড়িয়ে পড়েছিল। অবশেষে সেই খবর নজরে পড়তেই ত্রাতার ভূমিকা পালন করলেন সাংসদ অভিনেতা দেব।

আরও পড়ুন-একাধিক বিস্ফোরক অভিযোগে বিদ্ধ রিয়া, 'এফআইআর' দায়েরের পরই জামিনের আবেদন অভিনেত্রীর...

বেশ কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন যাদবপুরের বাসিন্দা। গত সোমবারই কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে। বেশ কয়েক জায়গা ঘুরেও হাসপাতালে ভর্তি হতে পারেননি তিনি। সকলেই বেড নেই বলে ফিরিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু তার পরিবারেরে দাবি কেপিসি মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালে বেড থাকা সত্ত্বেও তারে ভর্তি নেওয়া হয়নি।  তার পর থেকে দুশ্চিন্তায় রয়েছে তার গোটা পরিবার।  পুরো ঘটনা জানিয়ে নিজেই সোশ্যালে পোস্ট করেন ওই ব্যক্তি। আর তখনই তা দেবের নজরে আসে। তড়িঘড়ি সেই পোস্ট দেখেই করোনা রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন সাংসদ। পোস্টেই রোগীর আত্মীয়র ফোন নম্বরে যোগাযোগ করে  সমস্ত ডিটেলস নিয়ে স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে কথা বলে বেডের ব্যবস্থা করেন দেব। দেবের তৎপরতায় বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই ব্যক্তি। নিজের এলাকা ছাড়াও মানবিকতার খাতিরে তিনি সকলের পাশে রয়েছেন। আাগামী দিনের তিনি পাশে দাঁড়াবেন বলে কথাও দিয়েছেন।