বিয়ের পরের দিনই শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন হাসপাতালে৷ অবশেষে তিনদিন পর হাসাপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন অভিনেতা দীপঙ্কর দে। সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে।

জানা গেছে,  সোমবার রাতে ছুটি দেওয়া হয়েছে এই অভিনেতাকে। তবে এক সপ্তাহ পর ফের চেক আপের জন্য হাসপাতালে আসতে হবে তাকে৷ সোমবার সন্ধে সাড়ে আটটা নাগাদ তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়া হয়৷ গত ১৭ জানুয়ারি শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে হাসপাতলে ভর্তি হন দীপঙ্করবাবু। ১৬ জানুয়ারি অভিনেত্রী দোলন রায়ের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন তিনি৷ দীর্ঘদিন একসঙ্গে থাকার পর অবশেষে বিয়ে সারেন। জানা যায়,শুক্রবার সকাল থেকেই শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তাঁর। 

গত ১৬ জানুয়ারি রাতেই দক্ষিণ কলকাতার এর রেস্তোরাঁয় বসেছিল বিয়ের আসর। খুব আড়ম্বর না থাকলেও কাছের মানুষদের সাক্ষী রেখেই রেজিস্ট্রি করে বিয়ে সারেন দীপঙ্কর এবং দোলন। বেশি আড়ম্বর না থাকলেও বিয়ের সাজসজ্জা ছিল পরিপূর্ণ। সাদা পাঞ্জাবি, ধুতিতে বরের বেশে নজর কেড়েছেন দীপঙ্কর। আর অপরদিকে লাল বেনারসী, শাখা-পলা,গা ভর্তি গয়না, মাথা ভর্তি সিঁদুর, মাথায় লাল ফুল দিয়ে একদম নতুন বউ-এর রূপে ধরা দেন দোলন।

টলিউডে তাঁদের লিভ-ইন সম্পর্ক সম্বন্ধে জানতেন সবাই। দীর্ঘদিন পর সম্পর্কে সিলমোহর পড়ে তাঁদের। নিয়ম মেনে মালাবদল করেই চারহাত এক হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাট্যকার অভিনেতা ব্রাত্য বসু, ধ্রুব কুন্ডু, লেখক-সাংবাদিক রঞ্জন  বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌমিত্র মিত্র। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দোলনের ভাই দুর্গাশিস।