শারীরিক নিগ্রহের শিকারের ঘটনা ক্রমশ যেন বেড়েই চলেছে। অন্ধকার রাস্তা হোক বা প্রকাশ্যে আকছার এই ঘটনা ঘটেই চলেছে।  ফের শারীরিক হেনস্তার শিকার হয়েছেন টেলি অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। ঠিক ২ বছর আগে ২০১৮ সালে বাংলা টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেতা জয় মুখোপাধ্যায়  শারীরিক নিগ্রহের জন্য গ্রেফতার হয়েছিলেন। তৎকালীন প্রেমিকা অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শারীরিক নিগ্রহ করেছিলেন তিনি। আবারও ঠিক ২ বছর পরে শুটিং সেটে এই একই কান্ড ঘটালেন। বাংলা ধারাবাহিক জিয়নকাঠি-র শ্যুটিং  চলাকালীন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মাকে মারধর করেন জয়। সহকর্মীর গায়ে হাত তোলার জন্য তাকে ওই ধারাবাহিক থেকে রাতারাতি সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এবার তার চরিত্রে দেখা যাবে টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেতা সোমরাজ মাইতিকে।

আরও পড়ুন-করোনা আতঙ্কের মধ্যে মাস্ক পরে ফোটোশ্যুট, নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার পরিণীতি...

 ঠিক কী ঘটেছিল? শুটিং চলাকালীন ঐন্দ্রিলা মা ফোন করে অভিনেত্রীকে। ঐন্দ্রিলা মাকে বলে যে পরে কথা বলবেন। ততক্ষণে জয়ও চলে এসেছে। ফোন রাখার পরই ঐন্দ্রিলার সঙ্গে অভব্য আচরণ শুরু করে জয়। হাত ধরে টানাটানি থেকে শেষে ধাক্কাধাক্কিতে পৌঁছায়। ততক্ষণে ইউনিটের সবাই জয়কে আটকানোর চেষ্টা করে। এই ঘটনার পরই অভিনেত্রী থানায় জয়ের নাম অভিযোগ দায়ের করে। এর আগেও জিয়নকাঠি- ধারাবাহিকের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গেও জয় খারাপ ব্যবহার করে।

আরও পড়ুন-প্রভাস নয়, ভারতীয় ক্রিকেটারের সঙ্গেই গাটছড়া বাঁধছেন বাহুবলীর দেবসেনা...

জিয়নকাঠি-র নির্মাতা লীনা গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন,  জয়ের বরাবরই আচরণগত সমস্যা ছিল। কিন্তু এই ধরনের ঘটনা খুবই দুভার্গ্যজনক। জয়ের সঙ্গে আর কাজ করতে হবে না বলে খানিকটা ভাল লাগছে। আগামী ২০ তারিখ থেকে জয়ের চরিত্রে দেখা যাবে টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেতা সোমরাজ মাইতিকে।