করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার উদ্দেশ্যে রবিরার ভোর থেকেই ১৫ দিনের সম্পূর্ণ লকডাউন বাংলায়। আর রাত পোহাতে না পোহাতেই পাল্টে যায় বাংলার চেনা ছবি। রাস্তাঘাটে বিক্ষোভ, প্রতিরোধ, সমর্থকদের ভিড়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি আরও উত্তাল হয়ে ওঠে। লকডাউনের মাঝেই সিবিআই হানা! এতটাই জরুরী ছিল মানুষকে টেনে ঘর থেকে রাস্তায় নামানো! প্রশ্ন তুলল সিনে জগত। 

আরও পড়ুন- প্রয়াত শার্দূল সুন্দরী-র শ্রষ্ঠা, চলে গেলেন সাহিত্যিক-সাংবাদিক শীর্ষ বন্দ্যোপাধ্যায় 

সাংসদ তথা অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী লিখলেন- সিবিআই আসছে-ভ্যাকসিন কি আনা হচ্ছে। এটা বিজেপির চক্রান্ত, সাফ জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন রাজ চক্রবর্তী। তিনি লেখেন- ১০৮ বারাকপুর বিধানসভার সমস্ত তৃণমূল কর্মীদের জানানো হচ্ছে যে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি সকলকে শান্ত এবং বাড়িতে থাকার জন্য অনুরোধ করছেন। এটা বিজেপির একটা চক্রান্ত , আপনারা সেই চক্রান্তে পা দেবেন না।ওরা চাইছে আমরা অশান্তিতে জড়িয়ে পড়ি , কিন্তু আমরা ওদের প্ররোচনায় পা দেবোনা,মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মতো আমরা বাড়িতে থাকবো শান্তি বজায় রাখবো।

অভিনেতা ঋদ্ধি সেনও একই সুরে লেখেন- সব কিছু বড্ডো স্পষ্ট আজ , তও দুই দলের কাছেই আবেদন , চেষ্টা করুন শান্তি বজায় রাখার , এই হিংস্র নির্লজ্জ রাজনৈতিক দলের চক্রান্তে পা দেবেন না , ধিক্কার আমাদের রাজ্যপালকেও মানুষের চোখে আঙুল দিয়ে বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য যে এরম ভয়াবহ সময় প্রতিশোধ আর হিংসার রাজনীতিকে সমর্থন করার জন্য l এছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন সায়নী ঘোষ, বির্ষা দাশগুপ্ত প্রমুখেরা।