বলিউডের দুঃসময় যেন আর কাটছে না।  একের পর এক বড় ধাক্কা। সম্প্রতি মারণ ভাইরাস ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন বলি অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। মঙ্গলবার রাতেই স্টেজ থ্রি-তে ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে এসেছে।  তার  অসুস্থতার খবরে সকলেই চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন। সকল ভক্তরাই তার দ্রুত সুস্থতার কামনা করেছিলেন। তবে হাসপাতাল সূত্র থেকে জানা গেছে,তৃতীয় নয়, বরং স্টেজ ফোর-এ রয়েছে ফুসফুসের ক্যান্সার। সমস্যা আরও বেশি গুরুতর বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, চতুর্থ পর্যায়ের ফুসফুসের ক্যানসারের ক্ষেত্রে  রোগীর বাঁচার সম্ভাবনা খুবই কম থাকে। গত পাঁচ বছরের রিপোর্টে দেখা গেছে, মাত্র ১০ শতাংশ রোগী এই পর্যায়ের ক্যান্সারকে হার মানাতে পেরেছেন। 

আরও পড়ুন-সুশান্তের জন্য ১ মিনিট নীরবতা পালন, ১৫ আগস্টে নয়া আন্দোলনের ডাক দিদি শ্বেতার...


একদিকে অসুস্থতার খবর সেই সঙ্গে সঞ্জয়কে নিয়েও বলিউডের পরিচালকদের মাথায় বাজ পড়েছে।। বলিউডের 'ব্যাড বয়' সঞ্জয় দত্তের উপর এই মুহূর্তে ৭৩৫ কোটি টাকার ঢালা হয়েছে।  সুতরাং অভিনেতার অসুস্থ হওয়ার খবর শুনে সকলেই যেমন চিন্তিত তেমনই এতগুলো প্রজেক্টের ভবিষ্যৎ নিয়েও রীতিমতো আশঙ্কায় রয়েছে চলচ্চিত্র নির্মাতারা। বর্তমানে সঞ্জয় দত্তের ঝুলিতে রয়েছে মোট ৬টি ছবি রয়েছে। সেগুলোর মধ্যে বেশকিছু ছবির কাজ প্রায় শেষের পথে এবং সেগুলি আপাতত মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। যেমন প্রথম ছবি,  'সড়ক ২' চলতি মাসের ২৮ অগস্ট ওটিটিতে মুক্তি পাচ্ছে। দ্বিতীয় ছবি, 'তোরবাজ'-এরও শুটিং প্রায় শেষ। এই ছবিও ওটিটিতেই মুক্তি পাবে। তবে ছবি মুক্তির দিন এখনও ঠিক হয়নি। তৃতীয় ছবি, 'ভূজ: দ্য প্রাইড অফ ইন্ডিয়া' ছবিটিও মুক্তি পেতে চলেছে ডিজনি হটস্টারে। এই ছবিগুলির মুক্তি প্রায় সামনেই চলে এসেছে। কিন্তু সমস্যার বিষয় হল,  'কেজিএফ চ্যাপটার ২ ' ছবির এখনও পর্যন্ত তিন দিনের শুটিং বাকি রয়েছ। ২৯ জুলাই সঞ্জয়ের জন্মদিনেই ছবির ফার্স্ট লুক মুক্তি পেয়েছিল। এছাড়া সঞ্জয়ের আগামী ছবি  'শামসেরা'র এখন পর্যন্ত ৬ দিনের  শুটিং বাকি রয়ে গেছে। এছাড়াও  'পৃথ্বীরাজ' ছবির মাত্র ৪০ শতাংশ শুটিং হয়েছে। 

 

 

আরও পড়ুন-দেশপ্রেম বনাম বলিউড, ৭৩ তম স্বাধীনতা দিবসে রইল বাছাই করা ১০টি দেশাত্মবোধক ছবি...


 'পৃথ্বীরাজ' ছবিরই  সিংহভাগ অংশের কাজ বাকি রয়ে গেছে। এই ছবির নির্মাতারাই এখন বেজায় বিপাকে পড়েছেন। বহু প্রতীক্ষিত এই ছবির ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল বহুদিনআগেই। ছবিতে অক্ষয় কুমার এবং মানুষি চিল্লারকেও দেখা যাবে । সকলেই ছবি নিয়েই উচ্ছ্বসিত ছিলেন।   লকডাউনের জন্য শুটিংয়ে কোপও পড়েছিল। এবার সঞ্জয়কে নিয়ে বড় বিপাকে পড়েছেন পরিচালক। কারণ শুটিং কবে শুরু হবে আর কবেই বা শেষ হবে তার কোনও ঠিক নেই। প্রতিটি ছবিই বিগ বাজেটের। যেমন 'শামসেরা'র বাজেট ১৪০ কোটি, 'কেজিএফ চ্যাপটার ২'র বাজেট ১৫০ এবং সবথেকে বেশি বাজেট হল 'পৃথ্বীরাজ'-এর, মোট ৩০০ কোটি। এবার এই ৩ ছবির নির্মাতাদের কপালের ভাঁজ ক্রমশ প্রশস্ত হচ্ছে। অভিনেতার আরোগ্য কামনার পাশাপাশি সকলেই উদ্বিগ্ন ছবির শুটিং নিয়ে। গত ৮ আগস্ট শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়েই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল অভিনেতাকে। শ্বাসকষ্ট শুরু হতেই করোনার ভয় পেয়েছিলেন সঞ্জয়।  ২ দিন ধরে লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তিও ছিলেন অভিনেতা। কোভিড টেস্টের রিপোর্টও নেগেটিভ এসেছিল অভিনেতার। গত ১০ আগস্ট হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন বলি অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। কিন্তু বর্তমানে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে চতুর্থ পর্যায়ের ক্যান্সারের আক্রান্ত বলিউডের মুন্নাভাই।