বিগ বস থেকেই আজাজ খানের নাম প্রকাশ্যে উঠে এসেছিল। নানা কারণ বশত প্রথম থেকেই বিভিন্ন বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি বহুবার । এবার দেশের সাম্প্রদায়িকতা নষ্ট করার পক্ষে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয় মুম্বই পুশিলের কাছে। সেই অভিযোগ বশত ১৮ই জুলাই আজাজকে জেল হেফাজতে নেন মুম্বই পুলিশ। ঘটনার জেড়ে শনিবার তাঁকে ১৪ দিনের জন্য জেল হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হল। 

ঘটনার সূত্রপাত ঘটে বেশ কয়েকদিন আগে আজাজ খানের শেয়ার করা এক ভিডিওকে কেন্দ্র করে। সেখানেই দেখা গিয়েছিল তিনি এক মুসলিম ব্যাক্তিকে মারধর করার ভিডিও করে টিকটক করেন। টিকটক শেয়ার করে লিখেছিলেন যে এই ঘটনার প্রতিবাদ করতে দেশের সকল মুসলিমকে এক হওয়া উচিত। পোস্ট করা মাত্রই তা সকলের নজর কাড়ে। সেই তালিকায় ছিলেন অভিনেত্রী পায়েল, তিনি প্রকাশ্যে নিন্দা করে জানান এতে ভারতের শান্তি ও সমৃদ্ধি নষ্ট করা হচ্ছে। ফলে আজাজ খানের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৬৭ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। যার শাস্তি হিসেবে পাঁচ বছরের জেল বা পাঁচ লাখ টাকার জরিমানা হতে পারে। 

আরও পড়ুনঃ ওয়েব সিরিজ দেখে আত্নহত্যা-প্রবণ হচ্ছে ছেলেমেয়েরা! বাদ পড়ল রক্তাক্ত দৃশ্য

সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই এবার তাঁকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হয়। তারাতারি এই বিষয় কোনও সিদ্ধান্তে উপনিত হবেন শীর্ষ আদালত। এই ভিডিও শেয়ার করার ফলে ট্রোলেরও শিকার হন তিনি।