বলিউডে মাদক কারবারে এবার গ্রেফতার হল এক অভিনেত্রী। মুম্বই এনসিবি সূত্রে খবর মাদক কেনার সময় তাকে গ্রেফতার করা হয়। প্রীতিকা চৌহান নামে ওই অভিনেত্রীর সঙ্গে ফয়জল নামে বছর কুড়ির এক তরুণকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। এনসিবি জানিয়েছে, ফয়জল একজন মাদক বিক্রেতা। তার কাছ থেকেই গাঁজা কিনছিল বছর তিরিশের প্রীতিকা। ভারসোভার মাছিমার কলোনি থেকে প্রীতিকা ও ফয়জলকে গ্রেফতার করা হয়। ফয়জল জানিয়েছে, সে দীপক রাথাউর নামে একজনের কাছ থেকে এই মাদক পেয়েছিল। যদিও, দীপককে আগেই মাদক কারবারে জড়িত থাকায় গ্রেফতার করে নিয়েছিল এনসিবি। ফয়জলের কাছে থেকে ৯৯ গ্রাম গাঁজা পাওয়া গিয়েছে। 

প্রীতিকা যে একজন অভিনেত্রী- এই নিয়ে প্রথমে কোনও তথ্য এনসিবি-র কাছে ছিল না। মাদক কারবারে ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে ভারসোভার মাছিমার কলোনিতে ফয়জলকে চিহ্নিত করা হয়। ফয়জলকে ধরার সময় সেখানে মাদক কিনছিল প্রীতিকা। ফলে সে-ও এনসিবি-র জালে ধরা পড়ে। 

জানা গিয়েছে, প্রীতিকা সাবধান ইন্ডিয়া, সিআইডি-র মতো জনপ্রিয় হিন্দি সিরিয়ালে বেশকিছু এপিসোডে অভিনয় করেছে। এছাড়াও সে সন্তোষী-মা শুনায়ে কথা সিরিয়ালেও পার্বতীর ভূমিকায় অভিনয় করেছিল। স্টার ভারত বিনোদন চ্যানেলে জগৎজননী মা বৈষ্ণোদেবী সিরিয়ালেও ভূদেবীর চরিত্রে অভিনয় করে পরিচিত পেয়েছিল প্রীতিকা। এছাড়াও, সঙ্কটমোচন মহাবলী হনুমান সিরিয়ালেও প্রীতিকা দেবী শচী-র চরিত্রে অভিনয় করেছিল। 

এনসিবি সূত্রে খবর, শনিবার অন্ধ্রেরী ও ভারসোভা থেকে ১.৮৮ গ্রাম এমডিএমএ এবং ৪.৪০ গ্রাম মাদক একস্ট্যাসি উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় রোহিত হায়ার নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়। এই ঘটনার রেশ ধরে এনসিবি মুম্বই বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালিয়ে ৩২৫ গ্রাম গাঁজা, ৩২ গ্রাম চরস এবং একটি গাড়ি থেকে ০৫গ্রাম মেথামফেটামাইন মাদক উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে ১২৯৯০ টাকাও বাজেয়াপ্ত করা হয়। এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করে এনসিবি। 

মাদক কারবারের আরও একটি কেসে এনসিবি-র কাছে গোপন সূত্রে কিছু তথ্য আসে। যার ভিত্তি শনিবার এনসিবি-র আরও একটি দল দক্ষিণ মুম্বই-এর মহম্মদ আলি রোড থেকে চার গ্রাম কোকেন বাজেয়াপ্ত করে। এই ঘটনায় ব্রুনো জন নগওয়ালে নামে এক তানজানিয়ান নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়াও মাদক কারবারে দীপ রাথাউর নামে আগেই একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। সবমিলিয়ে এনসিবি জানিয়েছে, গত কয়েকদিনে মুম্বই-এর বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালিয়ে মোট ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের সঙ্গে মাদক কারবারে যোগ পাওয়া গিয়েছে। 

রবিবার প্রীতিকা ও ফয়জলকে আদালতে তোলা হয়েছিল। এনসিবি-রর দাবি, মাদক কেনার কথা স্বীকার করে নিয়েছে প্রীতিকা। অন্যদিকে ফয়জলও মাদক কারবারে বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়ে দিয়েছে।