গোয়ার সমুদ্রসৈকত অশ্লীল ভিডিও শ্যুটের পর অভিযোগ দায়ের হয়েছিল বম্বশেল পুনম পান্ডের বিরুদ্ধে। যারপর গ্রেফতারও করা হয়েছিল তাঁকে। ৪০ হাজার টাকার বিনিময় জরিমানা পেয়েছেন তিনি। পুনমের বিতর্কের রেশ টেনেই এবার বলিউডের অভিনেতা মিলিন্দ সোমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করল দক্ষিণ গোয়া জেলা পুলিশ। অশ্লীলতাকে উৎসাহ দেওয়ার অভিযোগে মিলিন্দের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি অনুযায়ী, ২৯৪ ধারা (অশ্লীল কর্মকাণ্ড) এবং ৬৭ ধারায় (অশ্লীল ছবি প্রকাশ) মামলা রুজু হয়েছে। 

সম্প্রতি ৫৫-এ পা দিয়েছেন মিলিন্দ সোমান। সেই সুবাদেই নগ্ন অবস্থায় গোয়ার সমুদ্রসৈকতে দৌড়ানোর ছবি পোস্ট করেছিলেন। পুনমের নগ্নতা নিয়ে আইনি সমস্যা সৃষ্টি হলেও মিলিন্দও কোনও ভাবে রক্ষা পাবেন না। দক্ষিণ গোয়ার পুলিশ সুপার পঙ্কজকুমার সিংয়ের কথা অনুযায়ী, সমুদ্র সৈকতে নগ্নতার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার অভিযোগে, গোয়া সুরক্ষা মঞ্চ নামে একটি সংগঠন মিলিন্দের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। মিলিন্দের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হওয়ার আগে তোলপাড় হয়ে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া। 

আরও পড়ুনঃশঙ্খ স্যারকে ভুলতে বসেছে মোহর, কার প্রেমে পড়েছেন সোনামণি

 

নেটিজেনের প্রশ্ন ছিল, পুনমের নগ্নতা অপরাধ হলে, মিলিন্দের নগ্নতা অপরাধ নয় কেন। দু'জনেই গোয়ার সমুদ্রসৈকতে অশ্লীলতা যদি দেখিয়ে থাকেন, তাহলে দু'জনের জন্য আইনি ব্যবস্থার ফারাক কেন হবে। একজনকে গ্রেফতার করা হল, এবং অন্যজনের ছবি নিয়ে কোনও বিতর্কই নেই কেন। প্রশ্ন তুলেছিল অসংখ্য মানুষ। সেই তর্ক-বিতর্কের রেশ কাটতে না কাটতেই মিলিন্দের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হল।