সানি লিওনি দিয়ে শুরু কলকাতার আশুতোষ কলেজে ইংরেজি স্নাতক স্তরে নাম আসে সানি লিওনির।  যা রীতিমত শোরগোল ফেলে দিয়েছিল নেট পাড়ায়। এরপরই ভাইরাল হয়ে ওঠা মেধাতালিকার সফরে সামিল রাজ্যের আরও বেশ কিছু কলেজ। বজবজ কলেজের পর এবার ভাইরাল হয়ে ওঠে মালদা কলেজ। সেখান মেধা তালিকায় এবার নাম উঠে এলো জনপ্রিয় প্লেব্যাক গায়িকা নেহা কক্করের। তড়িঘড়ি কলেজের তরফ থেকে অভিযোগ জানানো হয় সাইবার ক্রাইম বিভাগে।

আরও পড়ুনঃ ভালোবাসা ও স্নেহের জয়, দীর্ঘ অপেক্ষার পর মেয়েকে বুকে জড়িয়ে ঘুম পাড়ালেন সৃজিত

আশুতোষ কলেজ, বজবজ কলেজ, বারাসত গভর্নমেন্ট কলেজের পর মালদার একটি কলেজে একই ছবি দেখা যায়। মেধাতালিকাতে জায়গা করে নিচ্ছে সেলিব্রিটি। তবে এবার তা হালকা মেজাজে দেখতে নারাজ কেউই। তাই কলেজ কতৃপক্ষের তরফ থেকে যোগাযোগ করা হয় পুলিশের কাছে। কেন এভাবে একের পর এক বাংলার কলেজের মেধা তালিতাতে এই ধরনের ভুল দেখা যাচ্ছে! মিলিয়ে দেখা হয়েছে রোল নম্বরও। 

মালদার মানিকচক কলেজে বিএ পাস্ কোর্স, এডুকেশন ও ইংরেজি অনার্সের মেধাতালিকায় সবার উপরে রয়েছে নেহা কক্করের নাম। বিষয়টি লক্ষ্য করার পরই সাইবার ক্রাইম বিভাগে অভিযোগ জানিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। তালিকা থেকে এই নাম সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্তও ইতিমধ্যে নিয়েছে কতৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই আশুতোষ কলেজের পক্ষ থেকে অভিযোগ জানানো হয়েছে লালবাজারে। মিয়া খালিফার নাম উঠে আসে বজবজ কলেজে, কলেজের ঐতিহ্য এবং সুনামকে নষ্ট করার সুপরিকল্পিত প্রয়াস বলে অভিযোগ করে বারাসত গভর্নমেন্ট কলেজ কর্তৃপক্ষ। কলেজের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এটি ইচ্ছাকৃত কেউ, বা কারা করছে, শীঘ্রই তাদের ধরার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।