করোনায় আকরান্ত হয়েছেন অমিতাভ বচ্চন। খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই নেট দুনিয়ায় উঠেছিল এক প্রকারের ঝড়। বচ্চন পরিবারের দ্রুত আরোগ্য কামনায় সকলেই করেছিলেন প্রার্থণা। জয়া বচ্চন ছাড়া সকলের শরীরেই ছিলো করোনা। তবে শারীরিক কোনও সমস্যা না থাকায় বাড়িতেই রাখা হয়েছিল ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে। তবে কয়েকদিনের মধ্যেই তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। ভর্তি করা হয় নানাবতী হাসপাতালে। 

 

 

অপরদিকে করোনা সংক্রমণ হওয়ার পরই নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল অমিতাভ বচ্চনকে। পরিস্থিতি খানিক স্বাভাবিক হওয়ার পর থেকেই যথারীতি সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় হয়ে ওঠেন অমিতাভ বচ্চন। ভক্তরা তাঁর পরিবারের জন্য প্রার্থণা করেছিলেন, উঠেছিল শুভেচ্ছার ঝড়। তা দেখে আপ্লুত অমিতাভ জোড়হাতে বারে বারে জানিয়েছিলেন ধন্যবাদ। এবার সুস্থ হয়ে বাড়়ি ফিরেছেন আরাধ্যা-ঐশ্বর্য। 

 

 

বাড়ি এসে ঐশ্বর্যও সবার প্রথমে ভক্তদের উদ্দেশ্যে উদ্দেশ্যে জানালেন ধন্যবাদ। লিখলেন, তাঁর ছোট্চ অ্যাঞ্জেল আরাধ্যা, বাবা অমিতাভ, অভিষেক ও তাঁর জন্য প্রার্থণা করার তিনি ধন্য। বিপরীতে সকলের সুস্থতা কামনা করলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চনও। বর্তমানে তাঁদের সকলের শরীরের অবস্থা স্বাভাবিক। কেটে গিয়েছে ১৪ দিন। তাই অমিতাভের বাসভবন জলসাকেও কন্টাইনমেন্ট জোনের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।