সুশান্ত সিং রাজপুতের পুরনো নাচের ভিডিও ভাইরাল নেটদুনিয়ায়। যেখানে তাঁকে গলায় ফাঁস দিয়ে মেরে ফেলল কোরিওগ্রাফার শম্পা। ছোটপর্দায় কাজ করার সময় নাচের রিয়্যালিটি অনুষ্ঠান 'ঝলক দিখলাজা'-এ প্রতিযোগী হিসেবে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তাঁর একটি নৃত্য পরিবেশনার গল্প ছিল সুশান্ত শেষে মারা যাবে। বরং খুন হবেন। কোরিওগ্রাফার তাঁকে গলায় ফাঁস দিয়ে মেরে ফেলল শেষে। 

আরও পড়ুনঃফের হটনেসের তোপ ছাড়লেন ভোজপুরী সুন্দরী, ছবি দেখে কুপোকাত ভক্তরা

এই ভিডিওটি দেখে গা শিউরে উঠছে নেটিজেনের। ভিডিওটি ক্রমশ ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যা নাকি খুন সে বিষয় এখনও মতোবিরোধ চলছে। সম্প্রতি ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী পুলিশের তরফ থেকে খবর এসেছে, সুশান্তের মৃত্যু গলায় ফাঁস লেগেই হয়েছে। যা আত্মহত্যা বলেই দাবি করছে পুলিশ। তবে নেটদুনিয়ায় নানা তথ্য ভাইরাল হতেই একাধিক নেটিজেনরা বিশ্বাস করছেন অভিনেতাকে খুন করা হয়েছে। 

আরও পড়ুনঃঐশ্বর্যের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা, এই অভিনেতাদের বেঁচে থাকাই মুশকিল করে দিয়েছিলেন সলমন

এই খুনের পিছনে সাধারণ মানুষ দায়ী করছে মহেশ ভাট এবং সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী। এমনকি সম্পর্কে থাকাকালীন প্রায়ই সুশান্ত রিয়াকে বলতেন, তাঁর সঙ্গে সম্পর্কে থাকলে সুশান্ত যেকোনও দিন খুন হতে পারেন। এছাড়াও সুশান্তের মরদেহের ছবি ভাইরাল হতেই সেসব ছবি খতিয়ে দেখেছে সকলে। অভিনেত্রী পায়েল রোহাতগিও বেশ কয়েকটি তথ্য প্রকাশ্যে এনে বলেন, গলায় ফাঁস দিলে চোখ মুখের চেহারাই অন্যরকম হওয়ার কথা। সুশান্তের বাড়ির সিসিটিভিও তাঁর মৃত্যুর আগেরদিন থেকে বন্ধ ছিল। এই ধরণের বিভিন্ন তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই ঘনীভূত হয়েছে রহস্য।