বলিউডে প্রথম সারির অভিনেত্রীরা ইতিমধ্যেই নিজেদের ফিটনেস নিয়ে প্রত্যকেই সচেতন। কে কাকে টক্কর দিয়ে এগিয়ে যাবে এই নিয়ে রীতিমতো হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলে বি-টাউনে। পুরোনো থেকে নিউকামার প্রত্যেকের সঙ্গেই এই টক্করটা যেন সমানে সমানে চলেছে। আর এই হাড্ডাহাড্ডি টক্করের মধ্যে ওজন কমানোর বদলে ওজন বাড়াতে চাইছেন কৃতি শ্যানন। তাও আবার ১,২ কেজি নয় একেবারে ১৫ কেজি ওজন বাড়াতে চাইছেন অভিনেত্রী।  কিন্তু কেন?এই প্রশ্নই এখন বি-টাউনে ইতিউতি ঘুরে বেড়াচ্ছে।

আরও পড়ুন-'সিনেমার সমাবর্তন', ২০১৯-এর সেরার তকমা পেলেন কারা রইল তালিকা...

বলিউড অভিনেত্রী পুরো জোর কদমে লেগেছেন ওজন কমানোর প্রস্তুতিতে। খবরটা শুনে অনেকে চমকে গেলেও এটাই সত্যি। আপকামিং ছবি 'মিমি'র জন্য তার ওজন ৭০ কিলো হতে হবে। আর তার এখন যা ওজন তার থেকে ১৫ কিলো বাড়ালে তবেই ৭০ কিলোতে পৌঁছতে হবে। আর এই নতুন কাজের জন্যই তিনি এখন মরিয়া হয়ে লেগেছেন।

 


২০১৪ সালে 'হিরোপান্তি' ছবি দিয়ে বলিউডে কেরিয়ার শুরু করেছিল কৃতি। এর মধ্যে কেটে গেছে পাঁচ বছর। এবং বলিউডেও নিজের জায়গা বেশ পাঁকিয়ে নিয়েছেন অভিনেত্রী। মারাঠি ছবি 'মালা আই ভ্যাচি' থেকেই অনুপ্রাণিত হয়ে 'মিমি' নির্মিত করা হচ্ছে।  ২০১১ সালে ছবিটি জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিল। এই ছবি প্রসঙ্গে কৃতি জানান, 'এতটা ওজন বাড়ানো আমার কাছে খুব চ্যালেঞ্জের ব্যাপার। এর আগে কোনও ছবির প্রয়োজনে এতটা ওজন বাড়াতে হয়নি। এছাড়া নিজেকে নিয়েও এই প্রথম এক্সপেরিমেন্ট করছি। তার উপর হাতে সময় খুব কম। এর মধ্যে ১৫ কেজি বাড়ানো, সবমিলিয়ে বিষয়টা বেশ কঠিন। এটা একটা বড় চ্যালেঞ্জ '। ছবির চিত্রনাট্য তৈরি হচ্ছে সারোগেসির উপর ভিত্তি করে। সারোগেসি নিয়ে ভারতে কতটা স্বচ্ছতা রয়েছে সেই কথাই বলবে কৃতির এই নতুন ছবি। ছবির পোস্টারেও দেখা যাচ্ছে একহাত থেকে অন্য হাতে যাচ্ছে একরত্তি একটি শিশু। ছবির ক্যাপশনেও কৃতি জানিয়েছেন,' অপ্রত্যাশিত মিরাকল মানেই জীবন। একটা এসাধারণ জার্নির জন্য তৈরি হয়ে নিন'।