রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে বিহার কোর্টে মামলা দায়ের। সুশান্ত সিং রাজপুতকে মানসিক এবং আর্থিক শোষণের অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। বিহার কোর্টে রিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলেন মুজফ্ফরপুরের পাটাহির বাসিন্দা কুন্দন কুমার। চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুকেশ কুমারের কাছে পিটিশন ফাইল করেছেন কুন্দন। মামলার শুনানি হবে এই মাসের আগামী ২৪ তারিখ। পাটনার ছেলে সুশান্ত। তাঁকে নিয়ে আবেগে ভাসছে গোটা বিহার। তাঁর হঠাৎ আত্মহত্যায় চলে যাওয়া মেনে নিতে চাইছে না কেউই। যার জেরেই এই আইনি পদক্ষেপ নিয়ে চলেছে মুজফ্ফরপুর। সুশান্তকে ১৪ তারিখ নিজের বাড়িতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। অন্যদিকে রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক, রিয়াকে আট ঘন্টা জেরা করায় বেরিয়ে আসা নানা তথ্য, সুশান্তের সাইকোলজিস্টের দেওয়া সাক্ষাৎকারের উপর ভিত্তি করেই রিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ২৬/১১ মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড হেডলির সঙ্গে মহেশ ভাটের ছেলের যোগাযোগ, কী বলেছিলেন রাহুল

রিয়ার বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধি অনুযায়ী, ৩০৬, ৪২০ ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। রিয়ার সহ পুলিশ আরও চোদ্দো জনের বয়ান রেকর্ড করেছে। প্রসঙ্গত, আইনি বিপাকে সলমন খান, করণ জোহার, সঞ্জয় লীলা বনশালী, একতা কাপুর সহ আরও চারজন বলিউড তারকা। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পিছনে দায়ী এঁরাই। দাবি আইনজীবি সুধীর কুমার ওঝার। সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে যোগসাযোগ রয়েছে বলিউডের বহু তারকাদের। তাঁরাই নাকি ঠেলে দিয়েছে সুশান্তকে মৃত্যুর দিকে। মুজফ্ফরপুরের আদালতে মামলা রুজু হয়েছে এই আট জন তারকাদের বিরুদ্ধে। ভারতীয় দন্ডবিধি অনুযায়ী, ৩০৬, ১০৯, ৫০৪ এবং ৫০৬ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে সলমন, করণ, সঞ্জয়, একতা সহ চারজনের বিরুদ্ধে। 

আরও পড়ুনঃ'একে একে গা ঢাকা দিচ্ছে সবাই', সুশান্তের মৃত্যুর পর ভয়েতে এবার পিছোলেন সলমনের শালা আয়ুষ

 

অভিযোগে আইনজীবি জানিয়েছেন, সুশান্তকে পর পর সাতটি ছবি থেকে সরানো হয়। এবং তাঁর কিছু ছবির মুক্তিতে বাধা আসে। তার জন্য দায়ী ইন্ডাস্ট্রির এই ব্যক্তিত্বরাই। যার কারণে সুশান্ত এমন পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছেন। আগামী ৩ জুলাই আদালতে মামলার শুনানি হবে। সলমন খান, করণ জোহার, সঞ্জয় লীলা বনশানী, একতা কাপুর, দিনেশ বিজন, ভূষণ কুমার (টি-সিরিজের আধিকারী), সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা, আদিত্য চোপড়ার নাম রয়েছে অভিযোগে। সুশান্তের বাবা সিবিআই তদন্তের জন্য দাবি করেছেন। তাঁর কথায়, সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যা মনে হলেও, তাঁকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে সলমন খান, করণ জোহার সহ বাকিরা। একাধিক প্রযোজনা সংস্থা তাঁকে বাদ দিয়ে মানসিক ভাবে অত্যাচার চালিয়েছে তাঁর উপর। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যে বয়কট বলিউড মাফিয়া গ্যাং নামে একটি পিটিশনে সই করে চলেছে নেটিজেনরা। জাস্টিস ফর সুশান্তে সামিল দেশের একাধিক নেটিজেন।