মার্চ মাস থেকেই গোটা দেশ গিয়েছে লকডাউনে। তার আগে থেকেই একের পর এক রাজ্য বন্ধ করে দিয়েছিল সিনেমাহলের দরজা। যার প্রভাব পড়েছিল বিনোদন জগতে। বিস্তর আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হয় সিনে জগতকে। শেষ মুক্তি পাওয়া ছবি ইরফান খানের আংরেজি মিডিয়াম চলেছিল মাত্র এক সপ্তাহ। এরপর থেকেই সবকিছু বন্ধ। বন্ধ থাকে শ্যুটিংও। যার ফলে একের পর এক তারকা থেকে শুরু করে বিনোদন জগতের কর্মীরা সমস্যার মুখে পড়ে। 

আরও পড়ুনঃ দিল বেচারা প্রথম দৃশ্যের সুশান্ত, নেট-মহলে ঝড় তুলল সাদা কালো ফ্রেমবন্দি 'রাজা'

অথচ চারমাস কেটে গেলেও করোনার কোপ থেকে মেলেনি রেহাই। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বর্তমানে দুদিনে ১ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। তবে এই সংক্রমণের হার বাড়ছে কয়েকটি রাজ্যে। এমনই সময় বিনোদন জগতের কথা মাথায় রেখেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে প্রেক্ষাগৃহ খুলে দেওয়ার আবেদন জানাল তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রক । অগাস্ট মাসের মধ্যেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক। 

এই খবর প্রকাশ্যে আসা মাত্রই বেজায় খুশি বিনোদন জগত। পাইপ লাইনে থাকা একের পর এক ছবি মুক্তি পাচ্ছে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে। যার ফলে বিস্তর ক্ষতির মুখ দেখছে সিনে জগত। সদ্য মুক্তি পেয়েগিয়েছে সুশান্তের শেষ ছবি দিল বেচারা। ওটিটি-তে মুক্ত পেয়েছে ইরফানের শেষ ছবি আংরেজি মিডিয়াম। তবে এই সিদ্ধান্ত নিতে হলে একাধিক গাইড লাইন মানতে হবে। যা মেনে সিনেমাহলগুলি চালানো সম্ভব কি না তাও ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।