২০১৮ সালে সকলের চোখে তাক লাগিয়ে গাটছড়া বেঁধে ছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন ও রনবীর সিং। যার দরুণ বেশ কয়েকদিন যাবৎ খবরের শীরনামে পাকাপাকিভাবে জায়গা করে নিয়েছিল এই জুটি। সাত পাকে বাঁধা পড়ে এখন একই সঙ্গে সামলাতে হচ্ছে দুই দিক। একধারে সংসার তো অপরদিকে চলচ্চিত্র জগত। তবে এরই মধ্যে কি আসতে চলেছে অপর এক দায়ভার, মাতৃত্বের প্রসঙ্গে কি ভাবছেন দিপীকা, পরিবার গড়ার প্রতি কি সিদ্ধান্তি নিলেন এই তারকা জুটি।

পষ্টবাক্যে জানিয়ে দেন তারকা, সন্তান যখন হওয়ার তখন ঠিকই হবে। যারা বিবাহিত, যাদের সন্তান আছে আমি তাদের থেকেই জেনেছি মাতৃত্বের অুনুভূতি বিয়ের পর থেকেই পাওয়া যায়। অবশ্যই কখনও তো এই সিদ্ধান্ত নেবই, তবে বিবাহিত বা দম্পতি মানেই যে, সেই মেয়েটাকে এই প্রশ্নের সন্মুখীন হতে হবে, এটাকে আমি সমর্থন করি না। প্রসঙ্গ এড়িয়ে দিপীকা আরও বলেন, যেদিন আমরা এই প্রশ্নগুলো করা বন্ধ করব, পরিবর্তনটা সেদিন থেকেই আসবে।

ফলে বোঝাই যাই যায়, যে তারকা এই মুহূর্তে কোনও সুসংবাদ দেওয়ার কথা মাথায় আনতে নারাজ। কর্ম জীবনে এখন এই দুই তারকারই ব্যাস্ততা তুঙ্গে। দীপিকা পাড়ুকোন বর্তমানে তার দিল্লিতে শ্যুটিং নিয়ে বেজায় ব্যাস্ত। অ্যাসিডে আক্রান্ত লক্ষ্মী আগারওয়ালের বায়োপিকে মূল চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। যা ২০২০-র জানুয়ারী মাসে মুক্তি পাবে প্রেক্ষাগৃহে। আপাতত আসন্ন সুখবর বলতে এইটুকুই জানালেন তারকা।