সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে স্বজনপোষণ যেন আর ভালভাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। যত সময় এগোচ্ছে তার মৃত্যু নিয়ে  জট ক্রমশ গাঢ় হচ্ছে।  'স্বজনপোষণ'। এই একটা শব্দেই উত্তাল হয়েছে  বলি থেকে টলি। এই শব্দটার ক্ষমতা অনেক। একটি মাত্র শব্দকে কেন্দ্র করে সমস্ত অন্ধকার দিকগুলি বেরিয়ে আসছে। সুশান্ত সিংয়ের মৃত্যু যেন এই শব্দটার সঙ্গ সকলকে পরিচিত করিয়ে দিয়ে গেছে। এমনকী সুশান্তের পরিবারের পক্ষ থেকেই তার মৃত্যুকে আত্মহত্যা নয় বলেই দাবি করেছেন। ঠিক কোন পরিস্থিতিতে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন সুশান্ত সেই কারণ খতিয়ে দেখতেই তদন্তে নেমেছে পুলিশ।  উত্তাল পরিস্থিতিতে স্বজনপোষণ নিয়ে সরব হয়েছেন প্রয়াত অভিনেতার ইন্দ্র কুমারের স্ত্রী পল্লবী কুমার।

আরও পড়ুন-আবারও 'খান' পরিবারের পূত্রবধূ হতে চান মালাইকা, বিস্ফোরক বয়ানে হতবাক নেটিজেনরা...

সুশান্ত যেমন স্বজনপোষণের শিকার হয়েছেন, তেমনি অভিনেতা ইন্দ্র কুমারও এরই শিকার। প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রী  দাবি করেছেন, ইন্দ্রও দীর্ঘদিন মানসিক যন্ত্রণার মধ্যে দিয়ে কাটিয়েছে। ইন্দ্রর মৃত্যুর পিছনে বলিউডেও হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন তার স্ত্রী। এমনকী শাহরুখ খান ও করণ জোহরের বিরুদ্ধেও অভিযোগ তুলেছেন পল্লবী।

আরও পড়ুন-'সুশান্তের মৃত্যুর সিবিআই তদন্ত চাই', মুখ খুললেন মহাভারতের দ্রৌপদী...  


অভিনেতার স্ত্রী আরও জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে মৃত্যুর আগে তিনি অনেকে ছোট প্রজেক্টে কাজ করতেন। কিন্তু তিনি চাইতেন বড় প্রজেক্টে কাজ করতে। আর বড় প্রজেক্টে কাজ করার স্বপ্ন নিয়েই তিনি করণ জোহর এবং শাহরুখের কাছে গিয়েছিলেন। নিজের স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে গেছিলেন তিনি। তখন করণ ব্যস্ত থাকায় বেশ কিছুক্ষণ অভিনেতাকে অপেক্ষা করিয়ে রাখা হয়। বেশ অনেকক্ষণ অপেক্ষার পরে করণ এসে কথা বলে জানান তার ম্যানেজার গরিমার সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে। তবে বর্তমানে  তার প্রযোজনা সংস্থার কাছে তেমন কোনও কাজ নেই। এরপর গরিমাকে একাধিকবার ফোন করলেও ইন্দ্রকে দেওয়ার মতো কোনও কাজ নেই বলেই জানিয়েছিলেন করণের ম্যানেজার। ঠিক একইরকম ভাবে শাহরুখের সঙ্গে শুটিং সেটে দেখা করতে গেলে এই অজুহাতেই ইন্দ্রকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন  শাহরুখও।  বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় সিনেমাতেই অভিনয় করেছিলেন ইন্দ্র কুমার। ২০১৭ সালে ২৮ জুলাই মৃত্যু হয় অভিনেতার।