গত বৃহস্পতিবারই সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রকাশ্যে জানিয়ে ছিলেন দিয়া মির্জা, তাঁর আর সাহিলের সম্পর্কে এবার ইতি টানতে চলেছেন তিনি। কোনও বচসা বা বিবাদ ঘিরে নয়, নিজেদের মধ্যে কথা বলেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। কিন্তু বিটাউনে শোনা গেল অন্য সুর। সেখানে থেকেই উঠে আসে কণিকা ধিলেনের সঙ্গে নাঁকি প্রেম করছেন সাহিল। সেই খবর জানার পরই এই সিদ্ধান্ত নেন দিয়া।

আরও পড়ুনঃ বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিলেন দিয়া মির্জা, সোশ্যাল মিডিয়ায় দিলেন খোলা চিঠি

বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই শুক্রবার মুখ খোলেন কণিকা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সবর হয়ে জানান, তিনি কোনও দিনই দিয়া বা তাঁর স্বামীর সঙ্গে দেখা করেননি। এই ঘটনার সঙ্গে তাঁর নাম জড়িয়ে পড়ায় অসন্তোষও প্রকাশ করেন তিনি। তাঁর সঙ্গে পরকিয়া তো দূর তাঁরা নাকি একে অন্যের সঙ্গে কথাও বলেননি। 

 

 

কণিকা ধিলেন হলেন বিটাউনের টিত্রনাট্যকার। সদ্যমুক্তি পাওয়া ছবি জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া ছবির চিত্রনাট্যও তাঁরই হাতে লেখা। কেরিয়ারের শুরুটা হয়েছিল রেড চিলি প্রোডাকশন দিয়ে। তবে প্রথমে তিনি বিটাউনের সহপরিচালক ছিলেন। তারপর থেকেই একের পর এক ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন তিনি। কেদারনাথ, মনমর্জিয়া, প্রভৃতি ছবির চিত্রনাট্যে তিনি নজরও কাড়েন সকলের। এবার প্রকাশ্যে তাঁর নাম সাহিলের সঙ্গে জড়িয়ে যাওয়ায় নেট দুনিয়ায় সরব হলেন কণিকা। স্পষ্টভাষায় জানালেন নিজের মতামত।