লকডাউনের ওঠার পর শ্যুটিং শুরু টেলিপাড়ায়। মনামী ঘোষ সেই লকডাউনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একবারও বাড়ির বাইরে পা দেননি। মাস দুয়েক পর বেরিয়ে তিনি রীতিমত আতঙ্কে রয়েছেন অভিনেত্রী। শ্যুটিং পাড়ায় ঢোকার আগে সমস্ত নিয়ম মেনেও কাজ চলছে। তবুও কোথাও যেন ভয় কাটছে না অভিনেত্রী। শ্যুটিংয়ে যেতেই হবে কোনও উপায় নেই। এই শ্যুটিংয়ের মাঝেই রিসাইকল করা শুরু করেছেন তিনি। রং-তুলি নিয়ে বসে পড়েছেন মনামী। কাঁচের বোতলে রং করে রিসাইকেল করলেন। কেউ চাইলে প্লাস্টিকের বোতলেও এমন রং করতে পারে। সুন্দর ডিজাইনে সাজিয়ে তুলেছেন পুরনো বোতল।

আরও পড়ুনঃ'খুনির ভক্ত হয়ে লাভ নেই', প্রচার করতে গিয়ে নিন্দার সম্মুখীন সলমন

সেই ভিডিও নিজের ইউটিউব চ্যানেলে পোস্ট করেছেন মনামী। তাতে ভক্তদের মন্তব্য, "আর কি এমন কোনও প্রতিভা আছে যা আপনার মধ্যে নেই। এই লকডাউনে আপনার কবিতা আবৃত্তি, গান করা, নানা ধরণের শিল্প প্রকাশ্যে এসেছে।" দিন কতক আগেই মনামীর  স্লো মোশনের ভিডিওতে মন ভরে সকলের। নীল শাড়ি পরে খোলা চুলে উত্তর কলকাতার মতই এক রাস্তায় ঘুরে ফিরে বেড়াচ্ছেন মনামী। ক্যাপশনে লিখেছেন, "নীল বৃষ্টি।" তাতেই প্রশংসায় ভরছে কমেন্ট সেকশন। প্রসঙ্গত, মনামীর ইনস্টাগ্রাম লকডাউনে যেন টোটাল বিনোদনের প্যাকেজ। 

আরও পড়ুনঃ 'সীতা কেও অগ্নিপরীক্ষা দিতে হয়েছিল', মহেশ ভাট বিতর্কে কী বক্তব্য ছিল রিয়ার

কী না নেই নাচ, গান, কবিতা আবৃত্তি, শর্ট ফিল্ম। দিন কতক আগে মায়ের সঙ্গে গান গেয়েও ভিডিও আপলোড করেন অভিনেত্রী। মা ও মেয়ের সুরের প্রতিভায় হতবাক হয়েছিল নেটবাসী। অভিনেত্রী মনামী ঘোষ যে নিজের গানের প্রতিভা মায়ের থেকে পেয়েছে তা প্রকাশ পেল অভিনেত্রীর পোস্ট করা ভিডিওতে। মনামী এবং তাঁর মা সুর ধরেছেন লকডাউনে। 'এক বৈশাখে দেখা হয়েছিল দুজনার' গানটি গেয়েছেন দুজনে। মনামী মাঝে মধ্যেই নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় গানের ভিডিও পোস্ট করেন। এই প্রতিভা যে নিজের মায়ের থেকে পেয়েছেন তা বুঝতে আর অসুবিধা হয়নি নেটবাসীর।