প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং নিক জোনাসের প্রেমালাপ বিয়ের আগেও যেমন ছিল এখনও তেমনই রয়েছে। সম্প্রতি তাঁদের লাভি-ডাভি অবস্থায় দেখা গেল নিউ ইয়র্কের বিমানবন্দরে। একে অপররে হাত ধরে বিমানবন্দরে ছিলেন তাঁরা। পাপারাৎজির ক্যামেরায় ধরা পড়ল সেলেব জুটির সিক্রেট। নিকের ফোনের ঝলক আসতেই দেখা গেল প্রিয়াঙ্কার এবং নিকের লাভি-ডাভি ছবি। পুরনো একটি ছবি যেখানে একে অপরকে জড়িয়ে দাঁড়িয়ে আছেন তাঁরা। প্রসঙ্গত জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু নিয়ে প্রতিবাদের ঝড় গোটা বিশ্বে। আমেরিকা সহ অন্যান্য শহরে চলছে মিছিলও। ভারতে এই মুহূর্তে করোনার প্রকোপে ভারচ্যুয়ালি চলছে প্রতিবাদ। 

আরও পড়ুনঃবাবার মৃত্যুর পর বছর ঘুরতে না ঘুরতেই মা-কে হারালেন মুরলী শর্মা, শোকস্তব্ধ পরিবার

এরই মধ্যে সামিল হয়েছেন সিনে তারকারাও। যেমন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সোনম কাপুর, স্বরা ভাস্কর, করিনা কাপুর, দীপিকা পাডুকোন সহ অনেকেই প্রতিবাদের স্বর তুঙ্গে তুলেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এরই মাঝে কঙ্গনা রনাওয়াত এই সকল অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বিরুদ্ধে বলেছেন, ভারতে জনগণের হাতে সাধুহত্যা হলে এনাদের কারও মুখ থেকে প্রতিবাদের বাণী ঝড়ে পড়ে না, তাহলে এখন কেন। কঙ্গনার এই মন্তব্য করার পরই উঠে এল নয়া প্রসঙ্গ। সোনম, প্রিয়াঙ্কা, দীপিকার ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপন খুঁজে বের করে তাঁর হিপোক্রিসি নিয়ে আওয়াজ তুলেছে নেটদুনিয়া।

আরও পড়ুনঃহিন্দি বলতে গিয়ে কঠোর পরিশ্রম, সকলের সামনে মা শ্রীদেবীর তামাশায় লজ্জায় মাথা হেঁট জাহ্নবীর

 

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া থেকে দীপিকা পাডুকোন, সকলেই কোনও না কোনও সময় ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনে এনডর্স করেছেন। আর এখন তাঁরাই জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর বর্ণবিদ্বেষ নিয়ে প্রতিবাদ করছেন। প্রিয়াঙ্কার কেবল একটি বিজ্ঞাপন নয়, রয়েছে দু'টি বিজ্ঞাপন। এদিকে তাঁর পুরনো কিছু সাক্ষাৎকারও ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়। যেখানে তাঁকে বলতে দেখা গিয়েছে, "আমি বলতে পারব না, যে দু'দিনে এটা লাগালে ফর্সা হয়ে যাবে। আমি নিজের শ্যামবর্ণ নিয়ে যথেষ্ট খুশি।" এই সাক্ষাৎকার দেওয়ার পরও তিনি ফেয়ারনেস ক্রিমে একাধিবার এনডর্স করেছেন। সম্প্রতি নিক জোনাসের ট্যুইটে তাঁকে এবং তাঁর স্ত্রী প্রিয়াঙ্কার হিপোক্রিসি নিয়ে নানা মন্তব্য করে চলেছে নেটবাসী।