Asianet News Bangla

'রাজকে ব্ল্যাকমেল ও শিল্পার জীবন ধ্বংস করার চেষ্টা চলছে ', কান্নায় ফেটে পড়লেন অভিনেত্রী

রাজ কুন্দ্রার গ্রেফতারি নিয়ে এবার মুখ খুলেছেন রাখি সাওয়ান্ত। রাজকে নাকি ব্ল্যাকমেল করা হচ্ছে দাবি বলি অভিনেত্রী রাখি সাওয়ান্তের। রাজ ও শিল্পার হাসি-খুশি পরিবারকে ধ্বংস করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালানো হচ্ছে। শিল্পার মতো একজন অভিনেত্রীর ভাবমূর্তিও নাকি নষ্ট করা হচ্ছে।  একথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন নায়িকা।

rakhi sawant claims raj kundra is victim of blackmail and   someone is trying to defame Shilpa Shetty
Author
Kolkata, First Published Jul 21, 2021, 10:01 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

পর্নোগ্রাফি ছবি তৈরির অভিযোগে  সোমবার রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী প্রখ্যাত ব্যবসায়ীকে রাজ কুন্দ্রাকে। পর্ন ছবি তৈরি করে তা বিভিন্ন অ্যাপের মধ্যে ছড়িয়ে দিত রাজ। রাজকে নাকি ব্ল্যাকমেল করা হচ্ছে তেমনটাই দাবি করলেন বলি অভিনেত্রী রাখি সাওয়ান্ত। পাশাপাশি এও জানালেন রাজ ও শিল্পার হাসি-খুশি পরিবারকে ধ্বংস করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তিনি আরও বলেছেন শিল্পার মতো প্রথমসারির একজন অভিনেত্রীর ভাবমূর্তিও নাকি নষ্ট করা হচ্ছে। দয়া করে এসব বন্ধ করুন। একথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন নায়িকা।

আরও পড়ুন-পুলিশের হাত এল 'পর্নোগ্রাফি'র পান্ডা রাজের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট, খোঁজ মিলল পর্ন শুটের বাংলোর

আরও পড়ুন-'পর্নোগ্রাফি'র মূল পান্ডা শিল্পার স্বামী রাজ, কীভাবে চালাতেন নীল ছবির গোপন চক্র, প্রকাশ্যে এল সত্য

আরও পড়ুন-আন্ডারওয়ার্ল্ড যোগ থেকে ম্যাচ ফিক্সিং, বাদ গেল না 'পর্নোগ্রাফি', বিতর্কে শিল্পার স্বামী রাজ কুন্দ্রা

 

রাখির কর্মকান্ডে এমনিতেই নাজেহাল সাইবারবাসী। বিতর্ক যেন তার পিছু ছাড়ে না। নেটিজেনদের অনেকের মতেই, লাইমলাইটে থাকার জন্যই নাকি তিনি বারেবারে কন্ট্রোভার্সিতে জড়িয়ে পড়েন। এবারও রাজের পর্নোগ্রাফি নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে  লাইমলাইটে উঠে এসেছেন তিনি। শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রার গ্রেফতারি নিয়ে এবার মুখ খুলেছেন রাখি সাওয়ান্ত।

 

 

রাখি আরও জানিয়েছেন, জনপ্রিয় গান টুক টুক দেখে-এই গানটিতে নাচ করার সুযোগ পেয়েছিলেন শিল্পার কারণেই। কৃতজ্ঞতা জানাতেও ভুললেন না রাখি। আরও বললেন, রাজ একজন সম্মানীয় ব্যক্তি, ব্যবসায়ী মানুষ। আমি বিশ্বাস করতে পারছি না এই নোংরা কাজ তিনি করেছেন। আর শিল্পার মতো মানুষ হয় না। কেউ ইচ্ছা করেই তাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। কথা বলতে বলতে কান্নায় ভেঙে পড়ে রাখি বলেছেন, সদ্য করোনামুক্ত হয়েছে রাজ কুন্দ্রা ও শিল্পার পরিবার। এই মুহূর্তে  নোংরা খেলায় তাদের জড়ানো একদমই ঠিক নয়। 

 

 

অন্যদিকে রাজ কুন্দ্রা গ্রেফতারের পর একের পর এক বিস্ফোরক তথ্য সামনে আনছে পুলিশ। রমরমিয়ে কীভাবে চলত অশ্লীল ছবির এই চক্র,রাজ গ্রেফতার হতেই তা ফাঁস করেছে মুম্বই পুলিশ। এই ব্যবসায় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বানিয়ে সেখানে ৮ থেকে ১০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন রাজ কুন্দ্রা, তেমনটাই দাবি মুম্বই পুলিশের। এবার পুলিশের হাতে এল রাজ কুন্দ্রার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট, শুধু তাই নয়, এর পাশাপাশি খোঁজ মিলল পর্ন শুটের বাংলোরও। এইচ অ্যাকাউন্ট নামে একটি গ্রুপ রয়েছে, যার অ্যাডমিন শিল্পার স্বামী রাজ। এবং পর্ন সাইটের সমস্ত লাভ-ক্ষতির হিসেব করা হতো এখানে। মুম্বই পুলিশের আরও সন্দেহ, হটশটস নামে যে অ্যাপে পর্নোগ্রাফি আপলোড হতো তারই হিসেব চলত এই গ্রুপে। হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের পর সন্ধান মিলেছ পর্ন ছবি শুটের বাংলোর। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে মুম্বইয়ের মাড আইল্যান্ডের একটি বাংলোয় তল্লাশি চালায় পুলিশ। পর্নোগ্রাফির জন্যই এই বাংলো ভাড়া নেওয়া হয়, সেখান থেকে নয় জনকে পর্ন ছবি  বানানোর অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল জানিয়েছে পুলিশ। জাতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, সেই বাংলোরও কিছু ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। বাংলোটির ভাড়া প্রায় নাকি কোটি টাকার কাছাকাছি।


 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios