এখনও বক্স অফিস দাপিয়ে বেড়াচ্ছে কবীর সিং। একের পর এক পালক যুক্ত হচ্ছে কবীর সিং, থুড়ি শাহিদ কাপুরের মুকুটে। এই ছবি একদিকে যেমন বক্স অফিসে প্রশংসা কুড়িয়ে নিচ্ছে, সমালোচক মহলে এই ছবি নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। অনেকেই এই ছবিকে নারীবিদ্বেষী তকমাও দিয়েছেন। তবে সে সব তোয়াক্কা না করে এক মাস পরেও দর্শকদের মধ্য়ে রমরমিয়ে চলছে এই ছবি। ভারতের বাজারে এই ছবি ইতিমধ্যেই ২৬৬.৬২ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে। এমনকী, সলমন খানের ভারত ও ভিকি কৌশলের উরি দ্য সার্জিকাল স্ট্রাইক ছাপিয়ে গিয়েছে এই ছবি। 

আরও পড়ুনঃ কবীর সিং-এর সাফল্যের পরে বড় অঙ্কের পারিশ্রমিক চাইছেন শাহিদ কাপুর

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্য়মের প্রতিবেদন ছেকে জানা যাচ্ছে, ইতিমধ্য়েই কবীর সিং বলিউডে বেশ কটি রেক়র্ড ভেঙে দিয়েছে- 

১) মুখ্য অভিনেতা হিসেবে এত ভালো ব্যবসা আগে কখনও শাহিদের কোনও ছবি করেনি। পদ্মাবৎ ছবি সারা বিশ্বের বাজারে ৫৮৫ কোটি টাকা ব্যবসা করেছিল। কিন্তু সেই ছবিতে শাহিদ ছাড়াও ছিলেন রণবীর সিং ও দীপিকা পাডুকোনের মতো তারকারা। তাই বলাই যায় কবীর সিং-কে একার কাঁধে দাঁড় করিয়ে সাফল্য় দিয়েছেন শাহিদ কাপুর। 

২) ছবি মুক্তির পরেই এই ছবি বক্স অফিসে ২০.২১ কোটি টাকা ব্য়বসা করেছিল। শাহিদের অন্য কোনও ছবি এর আগে এই রেকর্ড তৈরি করতে পারেনি। 

আরও পড়ুন- 'কবীর সিং' নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল তর্ক! নায়কের বেশে স্রেফ খলনায়কের রাজ

৩) প্রথম উইকেন্ডেই ৭০.৮৩ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে শাহিদের কবীর সিং। এটিও তাঁর নতুন রেকর্ড। কারণ এর আগে তাঁর একার অন্য কোনও ছবি এই ফলাফল করতে পারেনি। 

৪) ২০১৯-এ এখনও পর্যন্ত বক্স অফিসে যে হিন্দি ছবি সবচেয়ে ভালো ব্যবসা করেছে তার নাম হল কবীর সিং। সলমন খানের ভারত ও ভিকি কৌশলের উরি দ্য সার্জিকাল স্ট্রাইকের বক্স অফিস কালেকশনকে ছাড়িয়ে গিয়েছে কবীর সিং। 

৫) ২০১৯-এ সবচেয়ে দ্রুত ২০০ কোটিতে পৌঁছয়ে কবীর সিং। মাত্র ১৩ দিনে ২০০ কোটির ব্যবসা করে কবীর সিং। ভারতে করেছিল ১৪ দিনে আর উরি ২৮ দিনে। 

৬) বলিউডে সবচেয়ে ভালো ব্যবসা করা ছবিগুলির মধ্যে নবম স্থানে রয়েছে কবীর সিং। 

৭) এবছর অস্ট্রেলিয়ার বাজারেও সবচেয়ে ভালো ব্যবসা করেছে শাহিদ কাপুরের কবীর সিং। গল্লি বয়, উরি, ভারতকেও ছাপিয়ে গিয়েছে এই ছবি।