গোটা বিশ্ব জুড়ে করোনার ত্রাস। সারা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্কে নাজেহাল বিশ্ববাসী।  যত দিন যাচ্ছে মৃত্যুমিছিল যেন ত্রমশ বাড়ছে।  করোনার সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন সর্বস্তরের মানুষ।  বিশাল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে প্রায় সব দেশ। মহামারি থেকে বাঁচতে সকলেই আর্থিক অনুদান করছেন। করোনা মোকাবিলায় ত্রান তহবিলে এবার এগিয়ে এসেছেন বলি ইন্ডাস্ট্রি। প্রত্যেকেই  সাধ্যমতো সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। শাহরুখ থেক হৃত্বিক সকলেই নিজেদের সাধ্যমতো সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ২৫ কোটি টাকা দিয়েছেন অক্ষয় কুমার। আবারও দ্বিতীয় দফায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন অক্ষয় কুমার। সকলকে ছাপিয়ে করোনা লড়াইয়ে তিনিই যেন এগিয়ে। বারেবারে তা প্রমাণ করে দিচ্ছেন অক্ষয়। 

আরও পড়ুন-বডি পেতে স্ত্রীকে ৬ লক্ষ ডলারের হুমকি ফোন, কবর খুড়ে তোলা হয়েছিল 'চার্লি'র দেহ...

অক্ষয়ের এই দান নিয়েই এবার মুখ খুললেন বর্ষীয়ান অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা। কম-বেশি অনুদান তো সকলেই করছেন। তাহলে কিসের এত প্রচার।  সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা জানিয়েছেন,'দান সবসময় গোপনে করতে করতে হয়। সবকিছুকে প্রকাশ্যে না আনাটাই ভাল। দান-অনুদান নিয়ে যদি এত খুল্লামখুল্লা আলোচনা করে তা প্রচার করা হয় তাহলে তার মধ্যে কোন মহত্ম থাকে না।'

আরও পড়ুন-ফের নক্ষত্রপতন, প্রয়াত হলেন 'খুবসুরত' অভিনেতা রঞ্জিত চৌধুরী...

অভিনেতা আরও জানিয়েছেন ২৫ কোটি টাকা অনুদান করে অক্ষয় যেভাবে প্রচার করছে তা অন্যের সঙ্গে তুলনা ছাড়া আর কিছুই বলা যায় না।  অক্ষয়ের বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন খামোশ অভিনেতা শত্রুঘ্ন। উল্লেখ্য শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ২৫ কোটি টাকাই নয়, বৃহন্মুবাই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনকে নগদ ৩ কোটি টাকা সাহায্য দিলেন অভিনেতা। সূত্র থেকে জানা গেছে, চিকিৎসক, নার্সদের যাতে কোনও অসুবিধা না হয় তাদের মাস্ক, করোনা পরীক্ষার কিট, এছাড়া প্রয়োজনীয় জিনিস কেনার জন্য তিনি এই অর্থ দান করেছেন। জীবন থাকলেই টাকা-পয়সা সবকিছু থাকবে। তার জীবন থাকতে থাকতে সকলের জন্য লড়তে হবে বলে জানিয়েছেন অভিনেতা অক্ষয় কুমার। সম্প্রতি একটি ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যেখানে চিকিৎসক, নার্স, পুলিশ, সাফাইকর্মী, ব্যাঙ্ক কর্মী যারা এই মহাসংকটের দিনেও আপ্রাণ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে তাদের সকলকেই ধন্যবাদ জানিয়েছেন।  নিজের ছবির সঙ্গে 'দিল সে থ্যাঙ্ক ইউ' লিখে নিজের এবং পরিবারের পক্ষ থেকে সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অভিনেতা।