এবার খোদ এনসিবির-দফতরেই করোনার হানা। মুম্বই পুলিশ,বিহার পুলিশ, ইডি, সিবিআই-এর পর সুশান্তের মৃত্যু মামলা খতিয়ে দেখতে তদন্তভার নিয়েছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। গতকালই সুশান্তের ম্যানেজার শ্রুতি মোদিকে সমন পাঠিয়েছিল এনসিবি। আজ সকালেই এনসিবি দফতরে পৌঁছে যান শ্রুতি মোদী। কিন্তু জিজ্ঞাসাবাদ শুরুর আগেই সিটের এক সদস্যের করোনার রিপোর্ট হাতে পায়ে এনসিবি। জানা যায় কোভিড পজিটিভ হয়েছেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদ বন্ধ করে শ্রুতিকে বাড়ি পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন-মাঝপথে বন্ধ ক্যান্সারের চিকিৎসা, এই কারণেই কি তড়িঘড়ি দুবাই উড়ে গেলেন সঞ্জয়...

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এনসিবি-র এক সদস্য। যার কারণেই সমস্ত নিয়মবিধি মেনেই বাকি সদস্যদেরও করোনা পরীক্ষা করা হবে। এনসিবি-র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, শ্রুতি মোদী আসার পরই রিপোর্ট পেয়ে তড়িঘড়ি তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।  এর আগে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার জিজ্ঞাসাবাদের মুখ পড়েছেন শ্রুতি।  পাশাপাশি সুশান্তের ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহাকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সমন পাঠিয়েছিল এনসিবি। তবে এখন জিজ্ঞাসাবাদ স্থগিত থাকলেও পরে আবারও তাদের ডাকা হবে।

আরও পড়ুুন-খোলা বুকে সাদা অন্তর্বাস দেখিয়ে এ কী করছেন ঋতাভরী, ভিডিও দেখে ঘাম ঝরছে নেটিজেনদের...

এনসিবি-র জেরায় গ্রেফতার হয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। সারারাত এনসিবির কোয়াটারেই থাকতে হয়েছে রিয়াকে। সারারাত ঘুমাননি অভিনেত্রী। বারান্দায় হেঁটে রাত কেটেছে রিয়ার। শুধু ড্রাগ সেবন নয়, ড্রাগ পাচার এবং ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে ড্রাগ আদান-প্রদানেরও অভিযোগ আনা হয়েছে রিয়া ও তার সঙ্গীদের বিরুদ্ধে। একাধিকবার এনসিবি-র জেরার মুখে পড়েই  মাদক সেবনের কথা স্বীকার করেছেন অভিনেত্রী রিয়া। ইতিমধ্যেই রিয়ার জামিনের আর্জিও খারিজ করা হয়েছে।  দাগী আসামীদের সঙ্গেই রাখা হয়েছে রিয়াকে।