১৪ জুন, বান্দ্রা ফ্ল্যাটে বেলা একটা নাগাদ ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের। যার ফ্যাাটের ঠিক উল্টো দিকেই থাকতেন সিদ্ধার্থ পিঠানি। সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মালমার পর বেশ কিছুদিন এই ব্যক্তি ছিলেন গা ঢাকা দিয়ে। সুশান্তকে ওযুধ দেওয়া থেকে শুরু করে তাঁর সব খবরাখবর রাখতেন এই ব্যক্তি। এমন কি সুশান্তের মৃতদেহ নামিয়েছিলেনও তিনি। এরপরই শুরু হয় সাওয়াল জবাব, একাধিকবার এনসিবি-র দফতরে দেখা যায় তাঁকে। সামনে আসে ড্রাগ মামলা। সেই মামলাতেই এক বছরের মাথায় নয়া মোড়। 

আরও পড়ুন- ঘূর্ণিঝড় 'Yaas'-এর তান্ডব, ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণের ব্যবস্থা করে বিধ্বস্তদের পাশে দাঁড়ালেন মিমি 

এনসিবি অর্থাৎ নার্কোটিক্স এবার হেফাজতে নিল সিদ্ধার্থকে। চলবে সওয়াল জবাব। সুশান্তের মৃত্যু বার্ষিকীর ঠিক দুই সপ্তাহ আগে ভক্তমনে নয়া ঝড়, অনেকেই এই কেস ধামা চাপা পড়ে যাওয়ার আশঙ্কাই করেছিলেন। তবে সকল বিতর্ক এড়িয়ে এবার জ্বালে সিদ্ধার্থ। ড্রাগ কেস প্রসঙ্গ ওঠা মাত্রই উঠে এসেছিল রিয়া চক্রবর্তীর নাম। হয়েছিল হাজতবাস। একটু হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপের মধ্যে দিয়ে বিটাউনে দীর্ঘদিন মাদক পাচারের কাজ করে সিদ্ধার্থ-রিয়া। 

তবে শাস্তি রিয়া পেলেও সিদ্ধার্থ ছিলেন অধরা। বিভিন্ন চ্যালেনে এসে একের পর এক সওয়াল জবাবে দেখা গিয়েছিল নানা অসংলগ্ন কথা। তবুও কেন গ্রেফতার হচ্ছেন না তিনি, প্রশ্ন তুলেছিল ভক্তরা। এবার নয়া মোড় মাদক মামলায়। যে মামলার জেরে সারা আলি খান থেকে শুরু করে দীপিকা পাড়ুকোন, শ্রদ্ধা কাপুর সকলেই হাজির হয়েছিলেন নার্কোটিক্সের অফিসে। এবার সেই ছকেই ধরা পড়লেন সিদ্ধার্থ।য় শীঘ্রই সিদ্ধার্থকে তোলা হবে কোর্টে, এমনটাই খবর সূত্র মারফত।