কয়েকদিন আগেই সামনে এসেছে সুশান্ত সিং রাজপুতের ব্যাঙ্ক অ্যাকউন্টের বিস্তারিত তথ্য। সেখানেই দেখা গিয়েছিল ২০১৯ সালে বেশ কিছু টাকা ব্যায় হয়েছিল পুজোর জন্য। সেইবছর এপ্রিল মাসেই সুশান্তের পরিবারের সকলে বান্দ্রার বাড়িতে কালসর্প পুজোর আয়োজন করেছিল তাঁর দিদি ও জামাইবাবু। টানা ৪ থকে ৫ ঘণ্টা ধরে চলে এই পুজো। যেখানে প্রথম থেকেই আনন্দের সঙ্গেই সামিল হয়েছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। নেট দুনিয়ায় এখন ভাইরাল সেই পুজোর ভিডিও। 

আরও পড়ুনঃ 'কে জোর করছে, যাবেন না ছবি দেখতে', বয়কট নিয়ে মুখ খুলতেই ট্রোলের মুখে বেবো

পুজো করেছিলেন পুরোহিত নারায়ণ শাস্ত্রী। সম্প্রতি এক সংবাদ মাধ্যমকে তিনি জানিয়েছিলেন তাঁর বাড়িতে তেমন কোনও দোষই ছিল না। শুধু মাত্র মঙ্গল কামনার জন্যই এই পুজোর আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন মোটের ওপর ১৩ জন পুরোহিত। সেদিন সুশান্ত নিজে হাতে ব্রাক্ষ্মণ ভোজনও করিয়েছিলেন। মূল পুরোহিতের কথায়, এদিন বেশ খুশ মেজাজেই ছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। আনন্দের সঙ্গে ভজনে সামিলও হয়েছিলেন তিনি। 

 

 

পণ্ডিত আরও জানিয়েছেন, তাঁর কথায় খুব ভালো মানুষ ছিলেন সুশান্ত। মনের মত পুজো হয়েছে বলেও তিনি জানান। যদিও এই খবরে আরও জল্পনা বাড়ে, তবে কী সুশান্তের পথে কোনও বাধার সৃষ্টি হচ্ছিল, কালসর্প দোষ কাটানোর পুজো করা হয়, যাতে ভবিষ্যতে চলার পথে কোনও সমস্যা না সৃষ্টি হয়। সেই কারণেই এক বছর আগে সুশান্তের বাড়িতে পুজো করানো হয়েছিল। যদিও দোষ নিয়ে কোনও উল্লেখই করেননি পুরোহিত।