মৃত্যু  তিনি যে বরাবরই ভয় পেতেন তা তার একাধিক পোস্টেই স্পষ্ট।  মৃত্যুর কোনও ইচ্ছেই ছিল না সুশান্তের।  আর সেটাই বলছে সুশান্তের হোয়াইট বোর্ড। কারণ তাতেই তিনি লিখেছিলেন তার আগামীর পরিকল্পনা।  মেডিটেশন থেকে ওয়ার্ক আউট সব কিছুই শুরুর অপেক্ষায় ছিলেন অভিনেতা।  আগামী ২৯ জুন থেকেই শুরু করতে চেয়েছিলেন । কিন্তু সবটাই অধরা করেই ১৪ জুন চলে গেলেন তিনি।

আরও পড়ুন-সুবিচার কি মিলবে, ভাইয়ের মৃত্যুর বিচারের আশায় প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ সুশান্তের দিদি শ্বেতা...


সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুজট এখনও কাটেনি। দেড়মাস পার হতে না হতেই সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে নয়া মোড় উঠে এসেছে। এখনও শোক কাটিয়ে উঠতে পারেনি সুশান্তের পরিবার। এতদিন চুপ থাকলেও সুশান্তের পরিবার এবার ফুঁসে উঠেছে। সম্প্রতি অভিনেতার হোয়াইট বোর্ডের আগামীর পরিকল্পনার ছবিই শেয়ার করেছেন দিদি  শ্বেতা সিং কীর্তি। ছবিটি শেয়ার করে শ্বেতা জানিয়েছেন, 'ভাইয়ের হোয়াইট বোর্ড। ২৯ জুন থেকে ওয়ার্কআউট, ট্রানসেনডেনটাল মেডিটেশন সব কিছুই আবার নতুন করে শুরু করতে চেয়েছিলেন। এর পাশাপাশি হ্যাশট্যাগ জাস্টিস ফর সুশান্ত লিখেও ভাইয়ে সুবিচারের দাবি তুলেছেন'। দেখে নিন পোস্টটি,  

 


সুশান্ত যে শিবভক্ত ছিলেন তাও জানা যায় সুশান্তের দিদির সৌজন্যে। নিজের মনের জোর বাড়ানোর জন্য মহাদেবের প্রার্থনাও করতেন। সুশান্তের গলায় 'জয় জয় শিব শম্ভু' গানের ভিডিও শেয়ার করেছেন শ্বেতা। 

 


 প্রয়াত অভিনেতার বাবার এফআইআর দায়েরের ভিত্তিতেই বিহার পুলিশের নয়া তদন্তে বেরিয়ে আসছে একাধিক তথ্য। এবার ভাইয়ের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হলেন প্রয়াত অভিনেতার দিদি  শ্বেতা সিং । প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে শ্বেতা জানিয়েছেন, সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে এবার তাকান দয়া করে। ভারতীয় বিচার ব্যবস্থার প্রতি আমাদের পূর্ণ ভরসা রয়েছে। আশা করি আমার ভাই সুবিচার পাবেই। এই আর্জি জানিয়েই প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা। কিছুদিন আগেই প্রয়াত অভিনেতার দিদি  শ্বেতা সিং কীর্তির সঙ্গে মৃত্যুর  ৪ দিন আগে  অভিনেতার কথোপকথন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। ৯ জুলাই দিদি শ্বেতার সঙ্গে বেশ দীর্ঘক্ষণ কথা হয়েছিল সুশান্ত সিং রাজপুতের। এবার সেই হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের স্ক্রিনশট সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন সুশান্তের দিদি। শ্বেতার বিয়ের অ্যালবাম থেকে সুশান্তের একটি ছবিও শেয়ার করেছেন অভিনেতার দিদি।