চলচ্চিত্র জগতে হিরো শব্দটা কেবল অভিনেতাদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য, কিন্ত কেমন এমন হয়! সেই প্রশ্নই তুলে ধরলেন বলিউড অভিনেত্রী তাপসী পান্নু। বর্তমানে বলিউডে অভিনেত্রী কেন্দ্রিয় ছবিও অনেক হচ্ছে। তবে কেন হিরো কথাটা অভিনেতাদের ক্ষেত্রেই সচল! 

বড় পর্দার হিরো, মানেই তিনি সর্বদা সঠিক, তেজ, দাপট, অ্যাকশনে ভরপুর কল্পনায় দেখা সেরা মানুষটা। তবে সেই সবগুণ নিয়েই যখন পর্দায় একজন অভিনেত্রী অভিনয় করছেন তখন তিনি হিরোইন কেন! তাপসী পান্নু এই ধরনেরই সাহসী চরিত্রে অভিনয় করতে বরাবরই পছন্দ করেন। মহিলা কেন্দ্রিক ছবি ভারতের দর্শকরা সমানভাবেই গ্রহণ করে। মহিলা কেন্দ্রিক ও পুরুষ কেন্দ্রিক ছবি যদি সমান তালেই দর্শকেরা এভাবে গ্রহণ করতে থাকে তবে একদিন হিরো শব্দের কোনও লিঙ্গ থাকবে না। 

কলার জোড়া ৪৪২ টাকা, রাহুলের টুইটে মোটা টাকা জরিমানা চণ্ডীগড়ের হোটেলের

এক সাক্ষাৎকারে তাপসী পান্নু জানান, আমি একদিন প্রমান করে দেব হিরো কথার কোনও লিঙ্গ হয় না। এক সময় দর্শকেরাও তা গ্রহণ করে নেবেন। সঙ্গে তিনি আরও বলেন কোনও পরিবর্তনই রাতারাতি হয় না। এতে সময় লাগবে ঠিকই। সম্প্রতিই তাপসী পান্নুর গেম ওভার ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু সেই ছবি বক্স অফিসে এক প্রকার ব্যার্থ হয়। তবুও আশাবাদী তাপসী। তিনি মনে করেন বাণিজ্যিক দিক থেকে এই ছবির একটা তাৎপর্য রয়েছে। যদিও বাদলা ছবি একশো কোটির ক্লাবেই জায়গা করে নিয়েছিল। সম্প্রতি সান্ড কি আখ ছবি নিয়েই ব্যাস্ত তিনি। এটিও এক অভিনেত্রী কেন্দ্রিক ছবি। তবে সামনেই মুক্তি পেতে চলেছে মিশন মঙ্গল। সেই ছবির প্রচার নিয়ে ব্যাস্ত তিনি।