প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতকে নিয়ে বিদ্যুৎ জামওয়ালের কোনও পোস্ট নেই। সেই প্রশ্নই এক ভক্ত করে বসল অভিনেতাকে। বিদ্যুৎ উত্তরে বলেন, "নিঃশব্দকে শোনার চেষ্টা করো। তুমি চুপ থাকলেই শুনতে পাবে। চোখের জল না দেখিয়ে, আবেগভরা কোনও পোস্ট না করেও দুঃখিত হওয়া যায়। এটাও এক ধরণের দুঃখপ্রকাশ। যে চলে গিয়েছে সে আমার পোস্ট পরতে পারবে না। তাঁর পরিবারেরও আমার ট্যুইট পরার মানসিক অবস্থা নেই। তাহলে কার জন্য লিখব। আমরা সকলে দুঃখিত। তবে আমার দুঃখ নিঃশব্দতায়।" বিদ্যুতের এই পোস্টে মুগ্ধ হয়েছেন সকল নেটিজেনরা। প্রসঙ্গত, সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে বয়কট বলিউড মাফিয়া নামে পিটিশন। 

আরও পড়ুনঃরিয়ার নামে করে দিয়েছিলেন কোম্পানি, বিয়ের আগেই সুশান্তের উপহার প্রেমিকাকে

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর জন্য দায়ী করা হচ্ছে এই গ্যাংকে। যেখানে ঝড়ের গতিতে সই করে যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায় ইউজাররা। বলিউড মাফিয়া গ্যাংয়ের মধ্যে নাম রয়েছে করণ জোহার, সলমন খান, সঞ্জয় লীলা বনশালী, একতা কাপুর, দিনেশ বিজন, ভূষণ কুমার, আদিত্য চোপড়া, আলিয়া ভাট, মহেশ ভাট, মুকেশ ভাট, রিয়া চক্রবর্তী এবং সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা। এদের মধ্যে যারা সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ অ্যাক্টিভ তাঁদের ফলোয়াড় সংখ্যা কমে চলেছে ক্রমশ। ভক্তরা যেখানে তাঁদের পোস্টের জন্য অধীর আগ্রহে বসে থাকত ভক্তরা, নেটিজেনরা, সেখানে তারা একে একে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে সেলেব্রিটিদের থেকে। করণ জোহারের ফলোয়াড়দের সংখ্যা কমেছে সবচেয়ে বেশি।

আরও পড়ুনঃ'হৃত্বিকের জন্য আমায় আর ফারহানকে পার্শ্ব চরিত্র বানিয়ে দিল', ধর্মেন্দ্র-র পরিবার থেকে এসেও সম্মান পাননি অভয়

 

সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল করার পাশাপাশি, ব্যান করার দাবি উঠছে তাঁদের ছবি। পিটিশন সই করাও চলতে চলতেই, বিহারে আইনজীবি সুধীর কুমার ওঝা ইতিমধ্যেই ভারতীয় দন্ডবিধি অনুযায়ী, ৩০৬, ১০৯, ৫০৪ এবং ৫০৬ ধারায় মামলা রুজু করেছেন সলমন, করণ, সঞ্জয়, একতা, দিনেশ বিজন, ভূষণ কুমার, আদিত্য চোপড়া, সাজিদ নাদিয়াদওয়ালার বিরুদ্ধে। গোটা দেশ এঁদের এবং স্টারকিডদের বিরুদ্ধে ফুঁসছে। সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করেই টার্গেট করা হচ্ছে তাঁদের। করণ জোহারের ফলোয়াড়ের সংখ্যা কমেছে এগারো মিলিয়ন থেকে দশ মিলিয়ন। সলমন খান, আলিয়া ভাট, সোনম কাপুরের ফলোয়াড় সংখ্যা কমে চলেছে।