সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্তে একের পর এক রহস্য বেরিয়ে আসছে। সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে রিয়া চক্রবর্তীর কল রেকর্ড। রিয়া কললিস্ট থেকে জানা গেছে, বলিউডে তাবড় তাবড় প্রথমসারির ব্যক্তিত্বদের সঙ্গেই রিয়ার যোগাযোগ ছিল। সেই তালিকায় প্রথমেই রয়েছেন বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান। আর কাদের সঙ্গে টেলিফোনিক যোগাযোগ ছিল রিয়ার,তা নিয়েই বাড়ছে জল্পনা। সূত্র থেকে আরও জানা গেছে,শুধু আমির খানই নয়, শ্রদ্ধা কাপুর, আদিত্য রায় কাপুর, রকুলপ্রীত, রানা ডগ্গুবতির নামও কললিস্টে উঠে এসেছে।

আরও পড়ুন-কল রেকর্ডে ধরা পড়ল আমির খানের নম্বর, বলিউডের আর কাদের সঙ্গে হাত রয়েছে রিয়ার...

তবে সকলের থেকে ছাপিয়ে গেছে অন্য একটি নম্বর। সন্দেহভাজন একটি নম্বর যা 'এ ইউ' আদ্যাক্ষর দিয়ে সেভ করে রাখা রিয়ার ফোনে। এই নম্বর নিয়েই জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। কে এই 'এ ইউ'? এই নম্বর থেকেই একাধিকবার ফোন এসেছে রিয়ার কাছে। রিয়াও একাধিকবার ফোন করেছে এই নম্বরে।  শুধু তাই নয় বেশ অনেকক্ষণ ধরেই ফোনে কথাবার্তা হয়েছে। কিন্তু কে এই ব্যক্তি তার হদিশ পেতেই তদন্তে নেমেছে সিবিআই।

আরও পড়ুন-শাহরুখ থেকে সুস্মিতা সেন, ধূমপানের নেশায় গভীর ভাবে আসক্ত এই বলি তারকারা...

উল্লেখ্য মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের ছেলে আদিত্য ঠাকরের টুইটার প্রোফাইলের নাম  'এ ইউ'। এই বিষয়টির সঙ্গে অনেকে সংযোগ খুঁজে পেয়েছেন। সুশান্ত সিং মামলা যেন কোনওভাবেই সিবিআই-এর হাতে না যায় , তা নিয়ে একাধিক প্রশ্ন তুলেছিলেন  উদ্ধব ঠাকরে। এমনকী সুশান্ত মামলা ধামাচাপা দেওয়ার জন্যও তিনি কাঠগড়ায় দাঁড়িয়েছিলেন। তবে রিয়ার ফোনে সেভ করা এই  নম্বরের সঙ্গে কি সত্যিই  কোনও যোগ রয়েছে আদিত্য ঠাকরের। তা নিয়ে জল্পনা ক্রমশ বাড়ছে। তবে সূত্র থেকে আরও জানা গেছে, রিয়ার বান্ধবী অনন্যা উদ্ধাসের নম্বর নাকি  'এ ইউ' দিয়ে  সেভ করেছিলেন রিয়া। তবে তিনি যে-ই হোন না কেন তার সঙ্গে রিয়ার যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল তা কিন্তু বেশ স্পষ্ট। সুশান্তের মৃত্যুর আগে ও পরের দিন অর্থাৎ ১৩ ও ১৫ জুন একাধিকবার ফোন কথাবার্তা হয়েছিল এই 'এ ইউ'-র সঙ্গে।