চলতি মাসের শেষের দিকেই সাসেক্সের ডিউক ও ডাচেস প্রিন্স হ্য়ারি ও মেগান মর্কেলের কোল আলো করে ব্রিটিশ রাজপরিবারে আসতে চলেছে নতুন অতিথি। রাজপুত্র না রাজকুমারী, এই নিয়ে ব্রিটেনে আগ্রহ এখন তুঙ্গে। রাজপরিবারে এই নিয়ে টু শব্দটি নেই। কিন্তু, ডাচেসের ঘনিষ্ঠ বান্ধবী তথা টেনিস রানী সেরেনা উইলিয়ামস এক সাক্ষাতকারে ভুল করেই এই কৌতূহল মিটিয়ে দিলেন।

প্রিন্স হ্য়ারি যদি ব্রিটিশ রাজপুত্র হন, মেগানও হলিউড অভিনেত্রী। তাই গত বছর ব্রিটিশ রাজপরিবারের এই বিবাহ নিয়ে শুধু ইংল্যান্ডেই নয়, গোটা বিশ্বেই তীব্র উন্মাদনা তৈরি হয়েছিল। আর মেগান ও হ্যারি ডাচেস অব সাসেক্সের গর্ভবতী হওয়ার কথা জানানোর পর থেকেই যাবতীয় কৌতুহলের কেন্দ্রে এখন রাজপরিবারে আসতে চলা নতুন অতিথি।

রাজপরিবারের তরফে এপ্রিলের শেষে মেগান সন্তানের জন্ম দিতে চলেছেন জানানো হলেও, জানানো হয়নি প্রত্যাশিত তারিখ। সেরকমই প্রকাশ করা হয়নি যে আসছে সে ছেলে না মেয়ে। কিন্তু সম্প্রতি মেগানের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বান্ধবী, টেনিস মেগা তারকা সেরেনার এক কথায় ব্রিটিশ রাজপরিবারে নতুন রাজকুমারীর আগমনের জল্পনা তৈরি হয়েছে।

২০১৮ সালেই নিজের সন্তানের জন্ম দিয়ে ফের কোর্টে ফিরে এসেছেন সেরেনা। সাক্ষাতকারে সেরেনা নতুন বাবা-মা-দের পরামর্শ দিতে গিয়ে মেগানের নাম না করে তাঁর এক 'গর্ভবতী বান্ধবী'র কথা জানান। তিনি বলেন, সেই বান্ধবী তাঁর মেয়ে জন্মানোর পর তিনি কী কী ভুল করতে পারেন সেই নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন। সেরেনা তাঁকে পরামর্শ দেন, ভুল হলে সেগুলিকে মেনে নিতে। আর কখনই নিখুঁত হওয়ার চেষ্টা না করতে।

এরপরই সেরেনার এই 'গর্ভবতী বান্ধবী' মেগান এই জল্পনা শুরু হয়েছে। সম্প্রতি সেরেনা নিউইয়র্কে মেগানের জন্য গোপনে 'বেবি শাওয়ার'-এর আয়োজনও করেছিলেন। তাতে জল্পনা আরও ডানা মেলেছে। আর সেই কারণেই বলতে না চেয়েও মেগান ও হ্যারির কোলে যে এক কন্যা সন্তান আসছে, তা সেরেনা ফাঁস করে দিলেন বলে মনে করা হচ্ছে।