উইন্ডসর দুর্গের সেন্ট জর্জেস হল। গত বছর এইখানেই বসেছিল তাদের রাজকীয় বিবাহের রিসেপশনের আসর। আর সেখানেই বুধবার প্রথমবারের জন্য সাসেক্সের ডাচেস এবং ডিউক, মেগান মর্কেল এবং প্রিন্স হ্যারি তাদের শিশুপুত্রকে জনসমক্ষে নিয়ে এলেন। তখন ব্রিটিশ রাজ পরিবারের সর্বকণিষ্ঠ রাজপুত্রটির গায়ে জড়ানো সাদা কম্বল, আর মাথায় একটি সাদা টুপি। বাবার কোলে পরম নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে।

গত সোমবারই স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ পৃথিবীতে আসে ব্রিটিশ রাজ পরিবারের এই নয়া অতিথি। জানা গিয়েছিল তার জন্মের সময় ওজন ছিল ৩.২৬ কিলোগ্রাম। তাদের রাজকীয় বিবাহ নিয়ে যেরকম ব্রিটেন-সহ সারা পৃথিবীতে সাড়া পড়ে গিয়েছিল, তেমনই মেগান ও হ্যারির প্রথম সন্তানকে নিয়েও কৌতূহল ছিল জগত-জোড়া।

সন্তান জন্মের পর সঙ্গে সঙ্গে সংবাদমাধ্যমের ফ্ল্যাশের ঝলকের সামনে আনতে চাননি হ্যারি ও মেগান। আবার একই সঙ্গে ডিউক ও ডাচেস দুজনেই নিজেদের সরকারি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খোলেন। তাই ধরে নেওয়া হয়েছিল ওই সোশ্যাল মিডিয়াতেই তাঁরা সম্তানের প্রথম ছবিটি দেবে। তাকে প্রথমবার কবে প্রকাশ্যে দেখা যাবে সেই প্রশ্নটাই ঘুরছিল সবার মনে। অবশেষে জন্মের আড়াইদিন পর দেখা দিল সে। সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়, সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরার সামনেই এল সে।

#WATCH The Duchess and Duke of Sussex, Meghan Markle and Prince Harry with their baby boy for the first time, at Windsor Castle, UK pic.twitter.com/khCCGJt0KJ

— ANI (@ANI) May 8, 2019

 

এখনও তার নাম ঠিক করতে পারেননি মেগান-হ্যারি। আপাতত সাসেক্সের ডিউক ওডাচেসের প্রথম সন্তানকে হচ্ছে 'বেবি সাসেক্স' নামে। এদিন পরম নিশ্চিন্তে তাঁরকে বাবার কোলে ঘুমিয়ে থাকতে দেখা যায়। মেগান ও হ্যারি জানিয়েছেন, বেবি সাসেক্সের এমনিতে ঘুম নিয়ে কোনও সমস্যাই নেই।

এদিন দৃশ্যতই দারুণ আবেগপ্রবণ ছিলেন মেগান মর্কেল। উইন্ডসর দুর্গে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, সবটাই তাঁর ম্যাজিকের মতো মনে হচ্ছে। তিনি জানান পৃথিবীর সেরা দুই পুরুষ রয়েছে তাঁর সঙ্গে, তৈাই তাঁর চেয়ে খুশি এই মুহূর্তে আর কেউ নয়।

প্রিন্স হ্যারি বলেন আড়াই দিন কেটে গেলেও প্রথম সন্তান জন্মের উত্তেজনা তাঁদের কাটেনি। বেবি সাসেক্সকে তিনি 'লিটল বান্ডিল অব জয়' বা 'আনন্দের বান্ডিল' বলে বর্ণনা করেছেন। সেই সঙ্গে হ্যারি ও মেগান তাঁদের পাশে থাকার জন্য সকলকে ধন্যবাদও জানান।

এদিনই প্রিন্স হ্যারি ওমেগান মর্কেল বেবি সাসেক্স-কে নিয়ে যাবেন কুইন ও ডিউক অব এডিনবরা-র সঙ্গে দেখা করতে।