সাধারণ বাজেট পেশ করার  আগেই সুখবর শোনাল অর্থ মন্ত্রক। রবিবার অর্থমন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে, জানুয়ারিতে পণ্য ও পরিষেবা কর বা জিএসটি (GST) আদায় হয়েছে ১.১৯ লক্ষ কোটি টাকা।  অর্থ মন্ত্রকের বিবডতিতে বলা হয়েছে, জিএসটি প্রবর্তনের পর ২০২১ সালের জানুয়ারি যে পরিমাণ যে পরিমাণ অর্থ আদায় হয়েছে তা সর্বোচ্চ। গতমাসের রেকর্ড সংগ্রহকেও চলতি মাসের জিএসটি ছাপিয়ে গেছে। মন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, জানুয়রিতে জিএসটি সংগ্রহ হয়েছিল ১.১৫ লক্ষ কোটি টাকা। 

অর্থ মন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে গত চার মাস ধরে মাসিক জিএসটি আয় এক লক্ষ কোটি টাকা ছাড়িয়েছ। মহামারির এই সংকটকালে যা আর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের সুস্পষ্ট সূচক বলেও দাবি করা হয়েছে। অর্থ মন্ত্রক জানিয়েছেন ৩১ জানুয়ারি ২০২১, সন্ধ্যে ৬টা পর্যন্ত সিজিএসটি আদায় হয়েছে ১,১৯,৮৪৭ কোটি টাকা আদায় করা হয়েছে এসজিএসটির পরিমাণ ২১,৯২৩ কোটি টাকা, আইজিএসটির পরিমাণ ২৯,০১৪ কোটি টাকা, আইজিএসটি ৬০,২৮৮ কোটি টাকা। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৮,৬২২ কোটি টাকা। ২০২১ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত জিএসটি রিটার্নের সংখ্যা ৯০ লক্ষ। 

গত বছর জানুয়ারি মাসে জিএসটি সংগ্রহ হয়েছিল ১.১ লক্ষ কোটি টাকা, যা চলতি বছরের তুলনা ৮ শতাংশ কম। এমাসে পণ্য আমদানি বেড়েছে ১৬ শতাংশ। গত বছরের তুলনায় গার্হস্থ্য  লেনদেনের থেকে আয় বেড়েছে ৬ শতাংশ। কেন্দ্রীয় সরকারের দাবি বেশ কয়েক মাস ধরে আয় বৃদ্ধির পরিমাণ বাড়ছে। কেন্দ্রীয় সরকারের দাবি জাল বিলিংএর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ, জিএসটি, আয়কর, শুল্ক, আইটি-সিস্টেম, কার্যকর ট্যাক্স প্রশাসন সহ একাধিক পদক্ষেপ সরকারের আয় বাড়াতে গুরুত্ব পূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করেছে।