বর্ধমান থানার সামনেই বিজেপি কর্মীদের ফেলে মারের অভিযোগ উঠল তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। রবিবার বিজেপি কর্মীদের ওপর অত্যাচারের প্রতিবাদে থানা ঘেরাও কর্মসূচি বিজেপির। থানা ঘেরাও করে শখানেক বিজেপি কর্মী সমর্থক। 

অভিযোগ,সেখানে হঠাৎই হাজির হয় তৃণমূলের দুই সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রব এবং খোকন দাস। শুরু হয় দু'পক্ষের বচসা। তারপরই এই দুই তৃণমূল নেতার সঙ্গে থাকা তৃণমূল কর্মীরা বিজেপি কর্মীদের রাস্তায় ফেলে থানার সামনেই মারধর শুরু করে। পরে থানার সামনে থেকে তাড়া করে বের করে দেওয়া হয় সকলকে।  এমনকী এক বিজেপি কর্মীর গলায় বিজেপির দলীয় পতাকার ফাঁস লাগিয়ে মারধরের ছবি সামনে আসে। 

রাস্তায় ফেলে বাঁশ দিয়ে পেটানো হয় বিজেপি কর্মীদের।  বিজেপি কর্মীরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। থানা থেকে বেরিয়ে কয়েকজন পুলিশকর্মী সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হয়। ঘটনার পর তৃণমূলের বক্তব্য, পথচলতি মানুষরা রাস্তা পার পার হতে পারছিল না বিজেপির বিক্ষোভের জেরে। তারাই হঠিয়ে দেয় বিজেপির‌ সমর্থকদের।

অভিযোগ এদিনই খেজুরিতে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ হয়েছে খেজুরিতে। বিজেপির দাবি, তাদের সাতজন কর্মী তৃণমূলের লোকজনের আক্রমণে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। ইতিমধ্য়েই এই নিয়ে সরব হয়েছেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। তিনি খেজুরিতে গেলে এই ধরনের বিষয় রোখা যেত বলে জানিয়েছেন তিনি।