পত্রলেখা বসু চন্দ্র, বর্ধমান:  স্কুল ও টিউশনি পড়তে যাওয়ার পথে উত্যক্ত করত প্রায়ই। শেষে কিনা রাস্তাতেই নাবালিকার কপালে সিঁদুর পরিয়ে দিল এক যুবক। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

আরও পড়ুন: বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ ১২ বছরের কিশোরীকে

অভিযুক্তের নাম মানিক বাগ। বাড়ি, ভাতারের বলগোনা পঞ্চায়েতে ঢেরিয়া গ্রামে। পেশায় সে দিনমজুর। পথে-ঘাটে দেখতে পেলেই গ্রামের এক নাবালিকাকে মানিক নানাভাবে উত্যক্ত করত বলে অভিযোগ। পরিবারের লোকেদের দাবি, স্কুল পড়ুয়া ওই কিশোরীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিল ওই যুবক। সেই প্রস্তাব প্রত্যাখাত করার পর রেহাই মেলেনি। এরপর ঘটনাটি অভিযুক্তের বাড়ির লোককে জানানো হয়। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: রক্তদান শিবিরেও রাজনীতি, সিপিএম কার্যালয়ে তাণ্ডব 'তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী'দের

আরও পড়ুন: আলু ৩০ টাকার বেশি দামে বিক্রি নয়, বাজারে হানা দিয়ে ব্যবসায়ীদের ধমক মহকুমা শাসকের

পরিবারের লোকেদের অভিযোগ, দিন দুয়েক আগে যখন রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল, তখন জোর করেই ওই নাবালিকার সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দেয় মানিক। ঘটনাটি জানাজানি হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। অভিযুক্ত মানিক বাগের বিরুদ্ধে ভাতার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নাবালিকার পরিবারের লোকেরা। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।