স্বপ্নের বাড়ি বানাতে কে না চায়। কিন্তু স্বপ্ন থাকলেও তা বাস্তবায়িত করতে পারে কয়জন। এবার দীর্ঘদিনের স্বপ্নই বাস্তব হতে চলেছে। জলের দরে সামান্য টাকা ইনভেস্ট করলেই পেয়ে যাবেন স্বপ্নের বাড়ি। মধ্যবিত্তদের এই স্বপ্নকেই সফল করতে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল মোদী সরকার। এবার প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার মাধ্যমে বাড়ি কেনার জন্য সাবসিডি-র সুযোগ মিলছে। ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় বাড়ির জন্য বুকিং শুরু হয়ে গিয়েছে  ১ সেপ্টেম্বর থেকেই ৷ এই যোজনায়  যারা বাড়ি কিনতে ইচ্ছুক, তারা আগামী ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত অনলাইনের মাধ্যমেই আবেদন করতে পারবেন ৷

প্রধানমন্ত্রীর আবাস যোজনার অন্তর্গত প্রথমবার বাড়ি কেনার জন্য গ্রাহকদের ক্রেডিট লিঙ্কড সাবসিডি দেওয়া হয়।  অর্থাৎ বাড়ি কেনার জন্য লোনের  সুদের হারে সাবসিডি দেওয়া হয় ৷ এই যোজনায় ২.৫০ লক্ষের বেশি পরিবার এই আকর্ষণীয় সুবিধা পাবেন ৷ ২০১৫ সালের ২৫ জুন  এই স্কিম চালু করা হয়েছিল ৷ কেন্দ্র সরকারের এই যোজনায় সাবসিডি স্কিম ৩১ মার্চ ২০২১ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে ৷ সামান্য রোজগার যাদের তাদের জন্য এই স্কিম নিয়ে এসেছে কেন্দ্র সরকার।

 যাদের আয় ৩ লক্ষ টাকার কম, তারা বুকিং করলে এই বাড়ি দেওয়া হবে ৷ রাজ্যের সমস্ত গরিব পরিবাররা মাত্র ৩.৫০ লক্ষ টাকায় এই বাড়ি পেয়ে যাবেন ৷  ৩ বছরের মধ্যে তাদের সমস্ত টাকা আবার ফেরতও দিয়ে দিতে হবে ৷ একদম শুরুর দিকে উত্তরপ্রদেশের হাউজিং ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিল ৫ বছরের মেয়াদে বাড়ি দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল ৷ কিন্তু বর্তমানে তা কমিয়ে ৩ বছর করা হয়েছে ৷ অনলাইনেই পিএমও-র ওয়েবসাইডে গিয়েই আবেদন করতে পারবেন গ্রাহকরা। আধার নম্বর,আধার কার্ডে থাকা নাম,নাম, ঠিকানা, পরিবারের সদস্যদের নাম সহ সমস্ত তথ্য দিয়ে সাবমিট করতে হবে। আবেদব করার জন্য মাত্র ১০০ টাকা করে দিতে হবে এবং রেজিস্ট্রেশনের জন্য ৫০০০ টাকা ব্যাঙ্কে গিয়ে জমা করতে হবে৷