বর্তমান   পরিস্থিতিতে খুব কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে সকলেই যাচ্ছে। করোনাকে আটকাতে ফের চালু হয়েছে পঞ্চম দফার লকডাউন ।  নামেই লকডাউন, কাজে তা কেউই মেনে চলছে না। মানুষ না মানলেও গ্রাহকদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে কিছু পরিষেবা তা এখনও মেনে চলছে। আর এটাই হল মোক্ষম সময়। এই মুহূর্তে সবথেকে বেশি ব্যাঙ্ক জালিয়াতির ঘটনা বেড়েই চলেছে। কখন নিজের অজান্তে বিপদ ঘটে যায় তা কেউই টেরই পায় না।  ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে অনলাইন প্রতারণা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। প্রতিনিয়ত কেউ না কেউ এর শিকার। কোটি কোটি গ্রাহকদের টাকা সুরক্ষিত রাখার অ্যালার্ট জারি করেছে দেশের সবথেকে বড় সরকারি ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। 

আরও পড়ুন-সুন্দরী মেয়ে দেখলেই যৌনমিলনের ইচ্ছা জাগে, পুরুষদের জন্য অপেক্ষা করছে ভয়ঙ্কর বিপদ...

স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে একটি টুইট করে গ্রাহকদের সতর্ক করা হয়েছে। টুইটে জানানো হয়েছে, প্রত্যেকেই  স্মার্ট ফোন ব্যবহার করেন, কিন্তু স্মার্ট ফোনের বিভিন্ন অ্যাপের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে বিপদ। যে কোনও মোবাইলে আনভেরিফায়েড অ্যাপ ব্যবহার না করাই ভাল। এই ধরনের অ্যাপের মাধ্যমেই প্রতারকরা ফাঁদ পেতে বসে রয়েছে। আর আপনিও অজান্তেই সেই ফাঁদে পা দিচ্ছেন। দেখে নিন এসবিআই-এর টুইটটি।

 

মহাসঙ্কট পরিস্থিতিতে নিজেদের গ্রাহকদের বাঁচাতে এবং আর্থিক সমস্যার থেকে রক্ষা করতে এই সুরক্ষাকবচ দিয়েছে এসবিআই। অনলাইনের মধ্যে প্রতারণার শিকার হয়েছে লক্ষ লক্ষ মানুষ।বিভিন্ন ব্যাঙ্ক কতৃপক্ষ গ্রাহকদের সর্তক করার জন্য বিশেষ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে  স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। এসবিআই-এর পক্ষ থেকে গ্রাহকদের ভেরিফায়েড অ্যাপ ডাউনলোডের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কোনও অ্যাপ ইনস্টল করার আগে ভাল করে সেই অ্যাপ সম্বন্ধে জেনে নিন। কোনও নতুন অ্যাপকে পারমিশন দেওয়ার আগে ভাল মতোন চেক করে নিন। ফরওয়ার্ড করা ম্যাসেজের লিঙ্ক ভুলেও খুলবেন না। এছাড়াও অ্যাপের মধ্যে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের কোনও ডিটেলস সেভ করবেন না। স্মার্টফোন নিয়মিত আপডেট রাখুন।