করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে গোটা দেশে চলছে লকডাউন। জরুরী পরিষেবা ছাড়া বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, অফিস-কাছারি, কল-কারখানা, বিনোদন সবকিছুই। তার পরেও দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। লকডাউন উপেক্ষা করে অনেকেই নেমে পড়ছেন পথে। এই অবস্থায় বিভিন্ন জায়গা থেকে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল লকডাউনের মেয়াদ নাকি আরও বাড়াতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তা নিয়েই এবার প্রতিক্রিয়া দিলেন ক্যাবিনেট সচিব রাজীব গৌবা।

সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১১ জন আক্রান্ত, খুব শীঘ্রই করোনামুক্ত রাজ্য ঘোষণা তেলেঙ্গানাকে

এদেশেও এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের দেখাভালে রোবট, পথ দেখাল তামিলনাড়ু

করোনার থাবায় বন্ধ হয়েছে উৎপাদন, বিশ্ব জুড়ে চরমে এবার 'কন্ডোম' সংকট

গত মঙ্গলবার ২৪ মার্চ জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করতে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন চলবে ভারতে। সেই মেয়াদ যে আর বাড়ান হচ্ছে না, সেই কথআই সংবাদমাধ্যমের সামনে এবার জানালেন ক্যাবিনেট সচিব। রাজীব গৌবার কথায়, “এই ধরনের খবরে আমি নিজেই অবাক হয়ে যাচ্ছি। লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা আমাদের নেই।”

 

 

গত রবিবারই দেশে করোনা সংক্রমণের ঘটনা হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। তবে পরিস্থিতি যে এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে, এমনটাই দাবি করছে কেন্দ্রীয় সরকার। যে ভাবে  অন্যান্য দেশষে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, তার তুলনায় ভারতের পরিস্থিতি অনেকটাই স্থিতিশালী বলে দাবি করা হচ্ছে। এই অবস্থায় চলতি সপ্তাহ ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা, কারণ এই সপ্তাহেই বোঝা যাবে ভারতের করোনা সংক্রমমের  গতিপথ কোন দিকে যাচ্ছে।