১০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলেছে সংসদের বাদল অধিবেশন। শুক্রবারই জানানো হয়েচে যে অধিবেশন শুরুর ৭২ ঘন্টা আগেই প্রত্যেক সাংসদের করোনা পরীক্ষা করা হবে। কিন্তু, এদিনই করোনা কেড়ে নিল এক সাংসদকে। চলে গেলেন তামিলনাড়ুর কন্যাকুমারী-র কংগ্রেস সাংসদ, এইচ বসন্তকুমার-এর। বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

কোভিড আক্রান্ত হওয়ার গত ১০ অগাস্ট চেন্নাইয়ের অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। তাঁর শরীরে গুরুতর কোভিড-১৯ সংক্রমণজনিত নিউমোনিয়া দেখা দিয়েছিল। ভর্তি হওয়ার পর থেকেই তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটছিল। এদিন বিকেলে সব লড়াই শেষ হয়ে যায়। ভারতে এই প্রথম কোভিড জনিত কারণে কোনও সাংসদের মৃত্যু হল।

২০১৯ সালের নির্বাচনেই প্রথমবার সাংসদ হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন বসন্তকুমার। তার আগে তামিলনাড়ু বিধানসভার সদস্য ছিলেন দুইবার। এদিন তাঁর সংসদ সতীর্থের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বসন্তকুমারের সঙ্গে তাঁর নিজের একটি ছবি টুইট করে তিনি বলেন, তামিলনাড়ুর অগ্রগতির প্রতি বসন্তকুমারের আবেগ তাঁর মন কেড়েছিল। প্রয়াত কং সাংসদের পরিবার ও সমর্থকদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন মোদী।

শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও। কন্যাকুমারীর সাংসদ একজন বড় উদ্যোক্তা এবং সমজকর্মী ছিলেন বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। আর রাহুল বলেছেন মানুষের সেবা করার জন্য কংগ্রেসের নীতির প্রতি তাঁর অঙ্গীকার সবসময় মনে থাকবে। সাংসদের এই অসময়ে মৃত্যুতে তিনি জোর ধাক্কা খেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন প্রাক্তন কং সভাপতি।